মজার রান্না ডেস্ক: ভারতীয় বেশিরভাগ খাবারই বর্তমানে আমাদের দেশে বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। তেমনই একটি ভারতীয় জনপ্রিয় একটি খাবার হলো দই বড়া। ইফতারের টেবিলে আলু চপ, বেগুনির সাথে দই বড়া খাবারটি অনেকের কাছে অপরিহার্য। মুখরোচক আর ঠাণ্ডা ঠাণ্ডা এই খাবারটি দীর্ঘ রোজা শেষে যেমন মুখে যোগায় রুচি, তেমনি প্রাণ জুড়িয়ে দেয়। তাহলে দেখে নিন রেসিপিটি-

উপকরণ:

১ কাপ মাষকলাই ডাল

এক চিমটি বেকিং সোডা

তেল

২ চিমটি হিং

লবণ

২-৩ কাপ টকদই

২ টেবিল চামচ চিনি

২ টেবিল চামচ টক মিষ্টি চাটনি

ধনেপাতার চাটনি

জিরাগুড়ো

লাল মরিচ গুঁড়ো

লবণ

প্রণালী:

১। প্রথমে মাষকলাইয়ের ডাল ভালো করে ধুয়ে সারারাত অথবা ৪ ঘন্টা পানিতে ভিজিয়ে রাখুন।

২। মাষকলাই ডালের পানি ফেলে দিয়ে ব্লেন্ডারে ব্লেন্ড করে পেস্ট তৈরি করুন।

লক্ষ্য রাখবেন ব্লেন্ড করার সময় খুব বেশি পানি দেবেন না।

আপনি চাইলে এর সাথে বেকিংসোডা মেশাতে পারেন।

ব্যাটারটা যেন ঘন হয়।

ব্যাটার ভালোভাবে তৈরি হয়েছে কিনা তা পরীক্ষা করার জন্য পানির মধ্যে সামান্য ব্যাটার ছেড়ে দিন।

যদি ভেসে উঠে তবে বুঝতে পারবেন দই বড়া তৈরির জন্য পারফেক্ট ব্যাটার তৈরি হয়েছে।

৩। প্যানে তেল গরম হয়ে এলে এতে বড়ার আকৃতি করে ব্যাটার দিয়ে দিন।

বাদামী রং হয়ে এলে নামিয়ে ফেলুন। বড়ার তেলে দেওয়ার আগে ভালো করে ব্যাটার ফেটে নেবেন।

৪। আরেকটি প্যান তেল দিয়ে মাঝারি আঁচে গরম করতে দিন। এতে হিং দিয়ে দিন। তেলে হিং ছিটে এলে নামিয়ে ফেলুন।

৫। একটি পাত্রে পানি এবং লবণ মিশিয়ে নিন। এতে বড়াগুলো ডুবিয়ে রাখুন ১৫ থেকে ২০ মিনিট।

৬। অন্য একটি পাত্রে টকদই, চিনি এবং লবণ একসাথে ভালো করে ফাটুন।

৭। ২০ মিনিট পর বড়াগুলো নরম হয়ে এলে পানি ঝড়িয়ে টকদইয়ের মাঝে বড়াগুলো দিয়ে দিন। টকদইয়ের মধ্যে বড়াগুলো কিছুক্ষণ রাখুন।

৮। এবার পরিবেশন প্লেটে দই এবং বড়া দিয়ে তার উপর টক-মিষ্টি চাটনি, ধনেপাতার চাটনি, মরিচ গুঁড়ো,জিরা গুঁড়ো এবং লবণ ছিটিয়ে দিন।

৯। ব্যস তৈরি হয়ে গেলো পারফেক্ট দই বড়া।

রেসিপিটা দেখে নিন ভিডিওতে