fbpx
Trending

এই গরমে ঘরেই আইসক্রিম তৈরির ১৬টি রেসিপি

মজার রান্না ডেস্ক: আপনাদের জন্য এখন দেওয়া হচ্ছে অনেক মজার একটি খাবারের ১৬টি রেসিপি। এটি হলাে আইসক্রিমের রেসিপি। দেখে নিন রেসিপিগুলো।

 

চকলেট আইসক্রিম

উপকরণ :১. ডাবল বয়লারে গলানো চকলেট ১/৩ কাপ,২. কোকো পাউডার ১ কাপ,৩. গুঁড়া দুধ ২ কাপ,৪. পানি আড়াই কাপ,৫. কর্নফ্লাওয়ার ১ টেবিল চামচ,৬. চিনি পৌনে ১ কাপ,৭. ক্রিম ১ টিন,৮. জেলেটিন গলানো ১ টেবিল চামচ,৯. সিএমসিপাউডার গোলানো ১ টেবিল চামচ,১০. তরল গ্লুকোজ ১ চা-চামচ,১১. ডিমের সাদা অংশ ২টি,১২. চিনি ২ টেবিল চামচ।

প্রণালি :> প্রথমে গুঁড়া দুধ, পানি, কর্নফ্লাওয়ার ও চিনি ব্লেন্ড করে নিন। এবার মিশ্রণটি চুলায় দিয়ে ঘন করে নিন। গরম থাকতেই এতে তরল গ্লুকোজ মিশিয়ে নিন। ঠান্ডা হলে এতে জেলেটিন ও সিএমসি মিশান। ক্রিম ও গলানো চকলেট ও কোকো পাউডারের মিশ্রণ দিয়ে বিট করে ফ্রিজে ৩-৪ ঘণ্টা জমতে দিন। বের করে বিট করে আবার জমতে দিন। এভাবে ২ ঘণ্টা পরপর কয়েকবার করুন। শেষের বার ডিমের সাদা অংশ ও চিনির মেরাং দিয়ে বিট করে ভালোভাবে জমতে দিন।

ম্যাঙ্গো আইসক্রিম

উপকরণ :১. পাকা আমের কাঁথ ১ কাপ,২. টক দই ২-৩ টেবিল চামচ,


৩. হেভি ক্রিম ২০০ মিলি,৪. কনডেন্সড মিল্ক আধা কাপ,৫. ভ্যানিলা এসেন্স আধা চা চামচ।

প্রণালি :> ফ্রিজ থেকে সদ্য বের করা হেভি ক্রিম বিটার দিয়ে বিট করুন। ‘সফট পিক’ বা চূড়ার মতো হলে এর সঙ্গে কনডেন্সড মিল্ক, আমের কাঁথ, টক দই এবং ভ্যানিলা এসেন্স দিয়ে ভালো মতো মিশিয়ে পরিষ্কার প্লাস্টিক কন্টেইনারে ডিপ ফ্রিজে ছয় থেকে আট ঘণ্টার জন্য রেখে দিতে হবে। এরপর পরিবেশন করুন।

ভ্যানিলা আইসক্রিম

উপকরণ :১. হেভি ক্রিম ২০০ মিলি,২. কনডেন্সড মিল্ক আধা কাপ (মিষ্টি কম বেশির উপর পরিমাণ কমাবেন বা বাড়াতে পারেন),


৩. ভ্যানিলা এসেন্স আধা চা-চামচ।

প্রণালি :> ফ্রিজ থেকে সদ্য বের করা হেভি ক্রিম বিটার দিয়ে বিট করুন। ‘সফট পিক’ বা চূড়ার মতো হলে কনডেন্স মিল্ক, ভ্যানিলা এসেন্স দিয়ে ভালো মতো মিশিয়ে পরিষ্কার প্লাস্টিক কন্টেইনার বা বাক্সে ডিপ ফ্রিজে ছয় থেকে আট ঘণ্টার জন্য রেখে দিতে হবে। এরপর পরিবেশন করুন।

স্ট্রবেরি আইসক্রিম

উপকরণ :১. স্ট্রবেরি ১০টি,২. হেভি ক্রিম ২ কাপ,৩. কনডেন্সড মিল্ক ১ কাপ,


৪. চিনি ২ টেবিল-চামচ (স্বাদমতো),৫. এক ফোঁটা লাল খাবার রং,৬. স্ট্রবেরি এসেন্স ১ চা-চামচ।

প্রণালি :> আস্ত স্ট্রবেরি ও চিনি ব্লেন্ডার ব্লেন্ড করে স্ট্রবেরি পিউরি তৈরি করে নিতে হবে৷> ইলেক্ট্রিক কেক বিটার দিয়ে প্রথমে হেভি ক্রিম আট মিনিট বিট করুন। ক্রিমটা ফোমের মতো হয়ে আসলে কনডেন্সড মিল্ক, ভ্যানিলা এসেন্স এবং স্ট্রবেরি পিউরি দিয়ে দুই মিনিট বিট করে সব একসঙ্গে মিশিয়ে দিতে হবে।> সব মিশে গেলে একটি এয়ার টাইট বাক্সে ভরে, চার থেকে পাঁচ ঘণ্টা ফ্রিজে রাখলে জমে তৈরি হয়ে যাবে মজাদার স্ট্রবেরি আইসক্রিম ৷

অরেঞ্জ আইসক্রিম

উপকরণ :১. কমলার রস ১ কাপ,২. গুঁড়া দুধ ২ কাপ,৩. পানি আড়াই কাপ,৪. কর্নফ্লাওয়ার ১ টেবিল চামচ,৫. চিনি পৌনে এক কাপ,


৬. ক্রিম ১ টিন, ৭. জেলেটিন গলানো ১ টেবিল চামচ, ৮. সিএমসি পাউডার গোলানো ১ টেবিল চামচ, ৯. তরল গ্লুকোজ ১ চা-চামচ, ১০. ডিমের সাদা অংশ ২টা,১১. চিনি ২ টেবিল চামচ দিয়ে করা মেরাং।

প্রণালি :> গুঁড়া দুধ, পানি, কর্নফ্লাওয়ার ও চিনি একসঙ্গে ব্লেন্ড করে নিয়ে জ্বাল দিয়ে ঘন করে নিন। গরম অবস্থাতেই এতে তরল গ্লুকোজ মেশান। তারপর ঠান্ডা করে এতে জেলেটিন ও সিএমসি পাউডার গোলানো মিশ্রণ মেশান। এতে ক্রিম ও কমলার রস দিয়ে বিট করে ফ্রিজে জমতে দিন। ৩-৪ ঘণ্টা পর বের করে বিট করে আবার জমান। এভাবে কয়েকবার করুন। শেষের বার ডিমের সাদা অংশ ও মেরাং দিয়ে দিয়ে বিট করে ভালোভাবে জমিয়ে নিয়ে পরিবেশন করুন।

ফ্রুট আইসক্রিম

উপকরণ :১ কনডেন্সড মিল্ক ১ কাপ,২. ভ্যানিলা এসেন্স হাফ চা-চামচ,৩. পানি ঝরানো টকদই ১ কাপ,


৪. ফলের কুচি ১ কাপ,৫. আমন্ড-পেস্তা-কাজু কুচি আধ কাপ,৬. ক্রিম ১৭০ গ্রাম ,৭. গুড়া দুধ আধ কাপ।

প্রণালি :> আধ কাপ ফলের কুচি ও সিকি কাপ বাদাম কুচি বাদে বাকি সব উপকরণ একসঙ্গে ব্লেন্ডারে ব্লেন্ড করে নিন ।কয়েক রকম ফুড কালার মিশিয়ে আলাদা আলাদা বক্সে রেখে ফ্রিজে তিন ঘণ্টা রাখুন। ফ্রিজ থেকে আইসক্রিম বের করে বাকি ফলের কুচি ও বাদাম কুচি মিশিয়ে চার ঘণ্টা জমিয়ে পছন্দমতো ফলের কুচি দিয়ে পরিবেশন করুন ।**টিপস : ফ্রুট আইসক্রিমে পাকা আম, কলা, আপেল, সেন, স্ট্রবেরি, চেরি, আঙুর ইত্যাদি ফল ব্যবহার করা যায়।

গ্রিন ম্যাঙ্গো ললি

উপকরণ :১. পানি ৪ কাপ,২. চিনি ১ কাপ,৩. গ্রিন ম্যাঙ্গো জুস ৬ টেবিল চামচ,


৪. লবণ আধা চা-চামচ,৫. ম্যাঙ্গো এসেন্স ৭-৮ ফোঁটা,৬. সবুজ রং অল্প,৭. কাঠি প্রয়োজনমতো।

প্রণালি :> সব উপকরণ একসঙ্গে মিশিয়ে নিতে হবে ভালোভাবে। তারপর ছেঁচে নিন। আইসক্রিমের চাঁছে ঢেলে প্রতিটার ওপরে ১টা করে কাঠি ঢুকিয়ে দিয়ে ৫-৬ ঘণ্টা ফ্রিজে রেখে জমান। ভালোভাবে জমে গেলে পরিবেশন করুন।

চকবার

উপকরণ :১. হুইপ ক্রিম ১ কাপ,২. ভ্যানিলা এসেন্স ২ চা-চামচ,


৩. চকলেট আধা কাপ,৪. তরল দুধ ৩-৪ কাপ,৫. গুঁড়া দুধ ১ টেবিল চামচ।

প্রণালি :> হুইপ ক্রিম বিটার দিয়ে বিট করে নিয়ে চিনি দিয়ে আবার বিট করুন। তারপর এতে ভ্যানিলা এসেন্স ও গুঁড়া দুধ ও তরল দুধ দিয়ে বিট করতে হবে। তারপর ফ্রিজে ৩-৪ ঘণ্টা রেখে দিতে হবে। চকলেট চুলায় দিয়ে ডাবল বয়লারে গলিয়ে নিন। আইসক্রিমের ছাঁচে গলানো চকলেট লাগিয়ে নিয়ে একটু জমিয়ে নিয়ে এতে হুইপ ক্রিমের মিশ্রণটা দিয়ে কাঠি দিয়ে ফ্রিজে জমতে দিতে হবে ৩-৪ ঘণ্টা। পরিবেশনের আগে আইসক্রিমের ছাঁচটা সাধারণ তাপমাত্রার পানিতে ১০ মিনিট ভিজিয়ে রাখলে সহজে ছাঁচ থেকে আইসক্রিম বের হয়ে আসবে।

ত্রিরত্ন আইসক্রিম

উপকরণ :১. চিনি ১ কাপ,২. পানি ১ কাপ,৩. বেদানার রস ১ কাপ,


৪. করমচার রস আধা কাপ,৫. চেরির পিউরি আধা কাপ।

প্রণালি :> চিনি ও পানি অল্প আঁচে জ্বাল দিয়ে চিনি গলিয়ে নিতে হবে। ঠান্ডা হলে এই চিনির শিরায় বেদানা, চেরি ও করমচার পিউরি মিলিয়ে ফ্রিজে রাখতে হবে ৩-৪ ঘণ্টা। তারপর ভালোভাবে ব্লেন্ড করুন। আবার ফ্রিজে জমতে দিন। বের করে আবার বিট করে ফ্রিজে জমতে দিতে হবে। এভাবে কয়েকবার করে ভালোভাবে জমে গেলে সাজিয়ে পরিবেশন করুন।

পেস্তা আইসক্রিম

উপকরণ :১. গুঁড়া দুধ ২ কাপ,২. পানি আড়াই কাপ,৩. কর্নফ্লাওয়ার ১ টেবিল চামচ,৪. জেলেটিন গোলানো ১ টেবিল চামচ,৫. সিএমসি পাউডার গোলানো ১ টেবিল চামচ,


৬. চিনি পৌনে ১ কাপ,৭. ক্রিম ১ টিন,৮. তরল গ্লুকোজ ১ চা-চামচ,৯. পেস্তার পেস্ট ১ কাপ,১০. একটু সবুজ রং,১১. ২টা ডিমের সাদা অংশ,১২. ২ টেবিল চামচ চিনি দিয়ে করা মেরাং।

প্রণালি :> প্রথমে গুঁড়া দুধ, পানি, কর্নফ্লাওয়ার ও চিনি একত্রে ব্লেন্ড করে নিন। এরপর এটাকে জ্বাল দিয়ে ঘন করুন। গরম থাকতেই এতে গ্লুকোজ মেশাতে হবে। তারপর ঠান্ডা হলে জেলেটিন ও সিএমসি মিশিয়ে ক্রিম ও পেস্তার পিউরি দিয়ে ভালোভাবে বিট করতে হবে। তারপর ফ্রিজে ৩-৪ ঘণ্টা জমতে দিন। বের করে আবারও বিট করে আবার ফ্রিজে জমতে দিন। এ রকম করে ৩-৪ বার জমাতে ও বিট করে নিন। শেষের বার ডিমের সাদা অংশ ও চিনি ও মেরাং দিয়ে বিট করে জমাতে হবে। ভালোভাবে জমে গেলে পরিবেশন করুন।

মিক্স ফ্রুট ইয়োগার্ট আইসক্রিম

উপকরণ :১. পানি ঝরানো টকদই ৫০০ গ্রাম,২. মিক্স ফ্রুট ২ কাপ,৩. ক্রিম ১ কাপ,৪. ভ্যানিলা এসেন্স ২ চা-চামচ,


৫. গলানো সাদা চকলেট ১/৩ কাপ,৬. আইসিং সুগার সিকি কাপ,৭. ঘন তরল দুধ ১ কাপ,৮. গুঁড়া দুধ ১/৩ ভাগ।

প্রণালি :> ক্রিমটা ভালোভাবে বিট করে নিতে হবে। সাদা চকলেট ডাবল ব্রয়লারে দিয়ে গলিয়ে নিয়ে এতে ক্রিম, টকদই, চিনি, ভ্যানিলা এসেন্স দিয়ে ভালোভাবে বিট করুন। গুঁড়া দুধ দিতে হবে। মিক্সড ফ্রুট (চিনির শিরায় রাখা) দিয়ে ফ্রিজে জমতে দিন। ৩-৪ ঘণ্টা পর বের করে কাঁটা চামচ দিয়ে নেড়ে আবার ফ্রিজে জমতে দিন। তারপর সারা রাত ফ্রিজে রেখে জমিয়ে পরিবেশন করুন মজাদার মিক্সড ফ্রুট ইয়োগার্ট আইসক্রিম।

মনোলোভা আইসক্রিম

উপকরণ :১. গুঁড়া দুধ ২ কাপ,২. পানি আড়াই কাপ,৩. কর্নফ্লাওয়ার ১ টেবিল চামচ,৪. চিনি ২ টেবিল চামচ,৫. ক্রিম ১ টিন,


৬. জেলেটিন গোলানো ১ টেবিল চামচ,৭. সিএমসি পাউডার গোলানো ১ টেবিল চামচ,৮. তরল গ্লুকোজ ১ চা-চামচ,৯. পছন্দমতো ৫টি ফলের রস ও রং,১০. ডিমের সাদা অংশ ২টা,১১. চিনি ২ টেবিল চামচ।

প্রণালি :> প্রথমে গুঁড়া দুধ, পানি, কর্নফ্লাওয়ার ও চিনি বিট করে নিয়ে চুলায় দিয়ে ঘন করে এতে তরল গ্লুকোজ দিন। ঠান্ডা করে এতে জেলেটিন ও সিএমসি মিশিয়ে ক্রিম দিয়ে বিট করে ফ্রিজে জমতে দিন ৩-৪ ঘণ্টা। এরপর এটাকে ৫ ভাগে ভাগ করে পছন্দমতো স্বাদ ও রং মিশিয়ে বিট করে আবারও জমতে দিন। ২ ঘণ্টা পরপর বের করে বিট করে নিন। শেষের বার ডিমের সাদা অংশ ও চিনির মেরাং দিয়ে বিট করে ফ্রিজে জমতে দিন। তারপর পছন্দমতো গ্লাসে পরপর আইসক্রিমগুলো সাজিয়ে পরিবেশন করুন।

চকলেট-আমন্ড আইসক্রিম

উপকরণ :১. গুঁড়া দুধ ২ কাপ,২. কর্নফ্লাওয়ার ১ টেবিল চামচ,৩. পানি আড়াই কাপ,৪. চকলেটবার ১টি,৫. কোকো পাউডার ২ টেবিল চামচ,


৬. চকলেট ফ্লেভার আধা চা-চামচ,৭. চিনি পৌনে ১ কাপ,৮. ক্রিম ১৭০ গ্রাম,৯. আমন্ড পেস্ট আধা কাপ,১০. আমন্ড কুচি আধা কাপ,১১. জেলাটিন পাউডার ১ টেবিল চামচ,১২. গ্লুকোজ গাম সিকি চা-চামচ,১৩. ৩টি ডিমের সাদা অংশ।

প্রণালি :> গুঁড়া দুধ, কর্নফ্লাওয়ার, পানি, চিনি, কোকো পাউডার ও চকলেট একসঙ্গে ব্লেন্ডারে ব্লেন্ড করে চুলায় জ্বাল দিয়ে ঘন করে নিতে হবে। আধা কাপ পানির সঙ্গে জেলাটিন পাউডার গুলিয়ে দুধের মিশ্রণের সঙ্গে মিলিয়ে নিতে হবে। এতে আমন্ড পেস্ট, গ্লুকোজ গাম, ক্রিম ও এসেন্স দিয়ে ব্লেন্ডারে ব্লেন্ড করে বাক্সে করে ফ্রিজে তিন ঘণ্টা জমাতে হবে। ফ্রিজ থেকে আইসক্রিম বের করে ভালোভাবে ব্লেন্ড করে আবার ফ্রিজে রাখতে হবে। এভাবে দুবার করতে হবে। ডিমের সাদা অংশ ফোম করে আইসক্রিমের সঙ্গে মিলিয়ে আমন্ড কুচি ছড়িয়ে পাঁচ ঘণ্টা ফ্রিজে রেখে পরিবেশন করতে হবে।

ফ্রুট ইয়োগার্ট আইসক্রিম

উপকরণ :১. পানি ঝরানো টকদই ১ কাপ,২. কনডেন্সড মিল্ক ১ কাপ,৩. ভ্যানিলা এসেন্স সিকি চা-চামচ,


৪. ফলের কুচি ১ কাপ,৫. আমন্ড-পেস্তা-কাজু কুচি আধা কাপ,৬. ক্রিম ১৭০ গ্রাম,৭. গুঁড়া দুধ আধা কাপ।

প্রণালি :> আধা কাপ ফলের কুচি ও সিকি কাপ বাদাম কুচি বাদে বাকি সব উপকরণ একসঙ্গে ব্লেন্ডারে ব্লেন্ড করে নিতে হবে। কয়েক রকম ফুড কালার মিশিয়ে আলাদা আলাদা বাক্সে রেখে ফ্রিজে তিন ঘণ্টা জমাতে হবে।> ফ্রিজ থেকে আইসক্রিম বের করে বাকি ফলের কুচি ও বাদাম কুচি মিশিয়ে চার ঘণ্টা জমিয়ে পছন্দমতো ফলের কুচি দিয়ে পরিবেশন করতে হবে। এতে পাকা আম, কলা, আপেল, সেন, স্ট্রবেরি, চেরি, আঙুর ইত্যাদি ফল ব্যবহার করা যায়।

মধু আর ফলের আইসক্রিম

উপকরণ :১. ক্যানের কোকোনাট মিল্ক ১ কাপ,২. নারকেলের মিষ্টি চিড়া আধা কাপ,৩. খেজুর কুচি ১ কাপ,৪. সাগরকলা ২টি,


৫. কনডেন্সড মিল্ক ১ কাপ,৬. ক্রিম ১৭০ গ্রাম,৭. মধু ২ টেবিল চামচ,৮. মিল্ক ফ্লেভার সিকি চা-চামচ।

প্রণালি :> আধা কাপ খেজুর কুচি ও নারকেলের চিড়া বাদে বাকি সব উপকরণ একসঙ্গে ব্লেন্ডারে ব্লেন্ড করে বাক্সে রেখে ফ্রিজে তিন ঘণ্টা জমাতে হবে। ফ্রিজ থেকে বের করে আবার ব্লেন্ড করে তিন ঘণ্টা ফ্রিজে রাখতে হবে। ফ্রিজ থেকে আইসক্রিমের বাক্স বের করে আধা কাপ খেজুর কুচি ও নারকেলের চিড়া মিশিয়ে নিতে হবে। আবার ফ্রিজে চার ঘণ্টা রেখে পছন্দমতো সাজিয়ে পরিবেশন করতে হবে।

স্ট্রবেরি-মালাই কুলফি

উপকরণ :১. গুঁড়া দুধ দেড় কাপ,২. কনডেন্সড মিল্ক আধা টিন,৩. মালাই ১ কাপ,


৪. কর্নফ্লাওয়ার ১ টেবিল চামচ,৫. স্ট্রবেরি সিরাপ আধা কাপ,৬. স্ট্রবেরি এসেন্স সিকি চা-চামচ,৭. পেস্তাবাদাম কুচি ২ টেবিল চামচ,৮. পানি দেড় কাপ।

প্রণালি :> গুঁড়া দুধ, পানি, কনডেন্সড মিল্ক, এসেন্স ও কর্নফ্লাওয়ার একসঙ্গে গুলিয়ে ঘন করে জ্বাল দিয়ে চুলা থেকে নামিয়ে নিতে হবে। এতে মালাই দিয়ে ১০ থেকে ১২ মিনিট বিট করে বাক্সে করে ফ্রিজে তিন ঘণ্টা জমাতে হবে।ফ্রিজ থেকে কুলফি বের করে স্ট্রবেরি সিরাপ ও বাদাম কুচি মিলিয়ে কুলফির ছাঁচে ঢেলে তিন ঘণ্টা জমাতে হবে।** টিপস–অনেকের ধারণা, বাসায় তৈরি আইসক্রিম ভালো হয় না। আইসক্রিমের ভেতরে বরফ থেকে যায় শক্ত হয়ে যায়। আইসক্রিম নরম হয় না।    – রেসিপির নিয়ম মেনে আইসক্রিম তৈরি করতে হবে।– আইসক্রিম ঘন করে জ্বাল দেওয়ার পর ভালো করে ব্লেন্ড অথবা বিট করতে হবে। মিশ্রণটা যেন হালকা হয়ে যায়।– যে পাত্রে আইসক্রিম জমাতে হবে, সেটি শুকিয়ে মুছে নিতে হবে। তারপর ২০ থেকে ২৫ মিনিট ফ্রিজে রেখে ঠান্ডা করে আইসক্রিমের মিশ্রণ ঢেলে ফ্রিজে রেখে জমাতে হবে।

 

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close