উপকরণ:

ময়দা ২ কাপ,সুজি ১/২ কাপ,লবণ ১/৫ চা চামচ,চিনি ১ চা-চামচ,তরল দুধ / পানি পরিমাণমতো,ঘি অথবা তেল ভাজার জন্য।

প্রণালী:

ময়দা সুজি , চিনি ও লবন দিয়ে ভালো করে মিশিয়ে নিন। তারপর প্রয়োজন মত পানি/ দুধ অল্প অল্প করে দিয়ে পরোটার মত খামির বানিয়ে নিন। হাতের তালু দিয়ে তেল মাখিয়ে রেখে দিতে হবে মিনিট ১৫। এতে করে পরোটা সফট হবে।এবার টেবিলে কিছু ময়দা ছড়িয়ে খামিরটা যতটা সম্ভব পাতলা করে বেলে নিন। রুটি যত পাতলা হবে আপনার পরোটা তত মজা হবে। এবার হাত বা ব্রাশ দিয়ে বেলে রাখা রুটির উপর ঘি অথবা তেল ডলে ডলে মেখে নিন। ছুরি দিয়ে ছবিতে দেখানো উপায়ে চিকন চিকন স্ট্রিপ করে কেটে নিন।

যত চিকন করে কাটবেন পরোটার লেয়ার তত ভালো হবে। এবার রুটিটা একপাশ থেকে মোড়াতে থাকুন দড়ির মতো করে। মোড়ানো হলে আবার একটু তেল মেখে আস্তে আস্তে টেনে টেনে লম্বা করে পেঁচিয়ে গোল করে নিন।হাত দিয়ে আলতো করে চেপে চেপে রুটির মতো গোল করে নিন। কিন্তু বেলন দিয়ে বেলবেন না। তাহলে ভাঁজগুলো মিলিয়ে যাবে। চেপে গোল করার সাথে সাথে ভাজতে হবে। আগে থেকে গোল করে রাখবেন না।একটা গরম তাওয়ার উপর পরোটা দিয়ে একপাশ হালকা বাদামী করে সেঁকে নিন।

তাওয়া ভালোমতো গরম হতে হবে। তারপর উল্টে দিয়ে সেঁকা পাশে ঘি/তেল/বাটার ব্রাশ করে দিন। কয়েক সেকেন্ড পর আবার উল্টে দিয়ে ঘি/তেল/বাটার ব্রাশ করে দিন। বারকতক এভাবে উল্টে পাল্টে ভেজে নিন। পরোটার গায়ে সোনালী বুটি বুটি পড়লে ও ঠিক মত কুক হলে নামিয়ে নিন।বাকি গুলো ও এভাবে ভেজে নিতে হবে।সবগুলো ভাজা হলে একটার উপর একটা রেখে চারপাশ থেকে হালকা করে চেপে দিন। দেখবেন ভাঁজ গুলো আপনাআপনি খুলে খুলে আসছে। এবার পছন্দের কারীর সাথে পরিবেশন করুন।