উপকরণ :

ময়দা ২ কাপ,

তেল ২ টেবিল চামচ,

মুরগির কিমা দেড় কাপ,

থেঁতো করা রসুন ১ টেবিল চামচ,

আদা (মিহি কুচি) ৩ চা-চামচ,

পেঁয়াজপাতা কুচি ২টি (মাঝারি),

লবণ স্বাদমতো,

সয়াসস ২ চা-চামচ,

গোলমরিচ গুঁড়া আধা চা-চামচ,

লেমন রাইন্ড বা লেবুর খোসা কুচি আধা টেবিল চামচ,

মাখন ১ টেবিল চামচ।

সসের জন্য
উপকরণ :

টমেটো ২টি,

শুকনা মরিচ (২ টেবিল চামচ সিরকায় ৪ ঘণ্টা ভিজিয়ে রাখা) ৬টি,

রসুন ৮ কোয়া,

আদা ১ টুকরা,

ভাজা জিরা আধা চা-চামচ,

লবণ সিকি চা-চামচ,

চিনি (ঐচ্ছিক) আধা চা-চামচ।

 

প্রণালি:
ময়দার সঙ্গে আধা চা-চামচ লবণ ও তেল মিশিয়ে ময়ান দিন।

পরিমাণমতো পানি মিশিয়ে ময়ান দিন এবং নরম খামির তৈরি করুন।

ঠিকমতো ময়ান হলে হাতে কোনো ময়ান বা খামির লেগে থাকবে না।

কিমার সঙ্গে পেঁয়াজ, আদা ও রসুন কুচি, সয়াসস, লবণ ও গোলমরিচ গুঁড়া মিশিয়ে মেখে নিন।

ফ্রাইপ্যানে মাখন গলিয়ে কিমার মিশ্রণ অল্প আঁচে রান্না করুন।

পানি টেনে এলে পেঁয়াজপাতার কুচি দিয়ে নেড়ে আরও ২-১ মিনিট ঢেকে রাখুন।

এবার ঢাকনা খুলে কাঁচা মরিচ কুচি ও লেবুর খোসার কুচি দিয়ে নেড়ে ঢেকে দিয়ে চুলা বন্ধ করে দুই মিনিট রাখুন।

ময়দার খামির থেকে ছোট ছোট করে গোলা ভাগ করুন।

প্রতিটি গোলা হাতের তালুতে নিয়ে মসৃণ করে বলের আকৃতি গড়ে চ্যাপ্টা করে রুটি বেলুন।

রুটির মধ্যখানটা ভারী হলেও ধার বা কিনার পাতলা থাকবে।

রুটির মাঝখানে ১ টেবিল চামচ করে পুর দিয়ে অর্ধেকটা মুড়ে দিয়ে (চন্দ্রাকৃতি) ও পেঁচিয়ে এনে বাকি অর্ধেক চেপে দিন,

যেন মুখ খোলা না থাকে। মাইক্রোওয়েভ কুকারে আধা কাপ পানি নিয়ে ১ মিনিট গরম করে তার ওপর স্টিমার বসিয়ে কয়েকটি মোমো দিয়ে ঢেকে দিন।

হাইপাওয়ারে প্রথমে ৩ মিনিট ও পরে ২ মিনিট স্টিম করে ১ মিনিট স্ট্যান্ডিং টাইমে রেখে নামিয়ে সাজিয়ে সস দিয়ে গরম গরম পরিবেশন করুন।