মজার রান্না ডেস্ক: আপনাদের জন্য এখন দেওয়া হচ্ছে একটি মজার তেহারির রেসিপি। এটি হলো একটি বিফ তেহারি এর রেসিপি। দেখে নিন বিফ তেহারি রান্নার সহজ একটি রেসিপি।

উপকরন:

১ কেজি গরুর মাংস

১/২ কাপ পেয়াজ বাটা

২ টেবিল চামচ আদা বাটা

২ চা চামচ রসুন বাটা

১ চা চামচ মরিচের গুড়া

১/২ চা চামচ ধনিয়া গুড়া

৫ টা এলাচ,

২ টুকরা দারচিনি,

২ টা তেজপাতা

১/২ কাপ সরিষার তেল+ ১/৪ কাপ ভেজিটেবল অয়েল (রান্নার সাদা তেল)

লবন পরিমান মত

স্পেসাল গরম মশলা গুড়া ২ চা চামচ

স্পেশাল গরম মশলা :
১/২ চা চামচ গোল মরিচ,

১/৩ চা চামচ জিরা,

১/২ চা চামচ ধনিয়া,

১/২ চা চামচ জয়ত্রি,

৩/৪ টা এলাচ,

৫/৬ টা লং গুড়া করে নিন।

পোলাউয়ের জন্য:

৩ কাপ কালজিরা বা চিনিগুড়া চাল

১ টেবিল চামচ আদা বাটা

১/৩ ভাগ কাপ পিয়াজ মিহি স্লাইস করা

৩/৪ টা ছোট এলাচ,

২ টা বড় এলাচ,

১ টুকরো দারচিনি,

২ টা তেজপাতা

১/৪ কাপ ঘি+ ১/৮ কাপ সাদা তেল

লবন পরিমান মত

২০ টার মতো আস্ত কাচামরিচ

কেওড়া জল ইচ্ছা

প্রনালী:
১. মাংসের সব উপকরন মাখিয়ে ১ ঘন্টার মতো মেরিনেইট করে রাখুন।

স্পেশাল গরম মশলা টা রান্নার শেষে দিলে ভাল।

এখন ভালো মতো অল্প অল্প পানি যোগ করে কশিয়ে রান্না করুন।

৪৫ মিনিটের মতো কশিয়ে পরিমান মতো পানি দিয়ে ঢেকে দিন।

মাংসের ঝোল প্রায় শুকিয়ে ফেলুন, মাখা মাখা ঝোল রাখুন।

২ . আরেকটা হাড়িতে ঘি আর তেল গরম করে আস্ত গরম মশলা গুলো দিয়ে ভেজে পিয়াজ দিন – বাদামি হয়ে আসলে চাল দিয়ে ভাজুন।

আদা বাটা দিন। এখন মাংস দিয়ে গরম পানি দিয়ে দিন। লবন দিন।

লবণ একটু বুঝে শুনে, কারন মাংসেও লবন আছে।

আমি প্রতি কাপ চালের জন্য দেড় কাপ পানি দেই, সেই হিসেবে সাড়ে ৪ কাপ পানি দিয়ে ঢেকে দিন।

মাঝারি থেকে কিছু কম আচে রান্না করুন।

৩.পানি শুকিয়ে আসলে আস্ত কাচা মরিচ দিয়ে হালকা হাতে একবার নেড়ে দিয়ে কেওড়া দিয়ে দমে দিয়ে দিন।

আমি তাওয়াতে দম দেই না. আমি যেটা করি পোলাউয়ের হাড়ির মাপের আরেকটা হাড়িতে পানি দিয়ে সেই হাড়ির উপর পোলাউয়ের হাড়ি বসিয়ে দেই.

নিচের পানির স্টিমে উপরের হাড়ির পোলাউ সুন্দর ভাবে দম পাবে – পোলাউয়ের হাড়ির মুখ কিন্তু ঢাকা থাকবে।ব্যাস, তৈরি! গরম গরম সালাদ,কাবাব দিয়ে পরিবেশন করুন বিফ তেহারি।