মজার রান্না ডেস্ক: এটি বিভিন্ন ধরনের মসলা দিয়ে তৈরি করা হয়।যার ফলে এটা চূড়া,মুড়ি,বুট,কালাই ও অন্যান্য ভাজা জাতীয় জিনিসের সাথে খেলে অনেক সুস্বাদু হয়।কেউ কেউ এই বিভিন্ন ধরনের মসলার সাথে মাংসের(গরু,ছাগল) তৈল যুক্ত করে থাকেন।অনেক ধরনের মসলা থাকার কারণে মাংসের তৈলের গন্ধ বের হয় না। যার ফলে কেউ বুঝতে পারে না।

যেভাবে তৈরি করা হয় প্রথমে পরিমাণমতো পেয়াজ, আদা,শুকনো মরিচের গুড়া,হলুদ,সরিষা (ভিজে রেখে বাটতে হবে),রসুন(ছোবড়া যেন না থাকে),মাংসের তৈল,(অনেকেই দিয়ে থাকেন),লবণ এর পর কড়াইয়ে সামান্য পানি ও সামান্য তেল দিয়ে কিছুক্ষণ এগুলো সিদ্ধ করে নিতে হবে।যখন পানি শুষে নেওয়ার মতো ঠিক তখনই আবার তৈল এবং মসলা(প্যাকেটের মসলা হলে ভালো) নাড়তে থাকতে হবে।

যখন দেখবেন মাংসের ঝোলের মতো গ্যাদ্দা হয়ে আসছে ঠিক তখনেই চুলার উপর থেকে নামিয়ে ফেলুন।লবণ বেশি পরিমাণে দিলে অল্প দিনে তেলে দূর্ঘন্ধ আসবে এমনকি স্বাদ নষ্ট হয়ে যেতে পারে।

মুড়ি মাখার সময় মাখনওয়ালা সেই তৈরি করা তেল, বিট লবণ, মসলা ও লেবুর রস ব্যবহার করে থাকেন।