ঝাল পুলি–

উপকরণ: চালের গুঁড়া ৩ কাপ,পুরের জন্য হাড়ছাড়া মুরগির মাংস ২ কাপ,মরিচের গুঁড়া আধা চা চামচ,পেঁয়াজ কিউব করে কাটা ২ কাপ,কাঁচা মরিচ কুচি ৪-৫ টি,হলুদ গুঁড়া আধা চা চামচ,কর্ণফ্লাওয়ার ১ টেবিল চামচ,গুঁড়া দুধ ১ টেবিল চামচ,তেল পরিমাণমতো,দারুচিনি ২-৩ টুকরো,এলাচ ৩-৪ টা,পানি পরিমাণমত,লবণ পরিমাণমত,

প্রণালী–প্রথমে পুর তৈরি করার জন্য পেঁয়াজ তেলে ভেজে মাংসের কিমা ও সব মসলা দিয়ে ভূনা করে নিন। নামানোর আগে কর্ণফ্লাওয়ার ও গুঁড়া দুধ দেবেন।এবার পানিতে লবণ দিয়ে ভালোভাবে ফুটিয়ে তাতে চালের গুঁড়া দিয়ে খামির তৈরি করতে হবে।এই খামির থেকে রুটি তৈরি করে তার ভেতর মাংসের পুর দিয়ে তেলে ভেজে নিতে হবে। এবার গরম গরম পরিবেশন করুন।

ঝাল কিমা চিতই–

উপকরণ: চালের গুঁড়া (সেদ্ধ করা) ১ কাপ,মাংসের কিমা আধা কাপ,পেঁয়াজ কুচি ১ টেবিল চামচ,কাঁচামরিচ কুচি ১ চামচ,ধনেপাতা কুচি ১ টেবিল চামচ,টমেটো কুচি ২ টেবিল চামচ ওলবণ স্বাদমতো।

প্রস্তুত প্রণালি–চুলায় পিঠা বানানোর খোলা বসিয়ে তেল মাখিয়ে নিন। চালের গুঁড়ায় পরিমাণমতো পানি ও লবণ মিশিয়ে পিঠার গোলা তৈরি করে নিন।গরম খোলায় পিঠার গোলা দিয়ে কিছুক্ষণ রাখুন, সেদ্ধ করা মাংসের কিমা, পেঁয়াজ কুচি, ধনেপাতা কুচি, কাঁচামরিচ কুচি ও টমেটো কুচি দিন।এবার ঢাকনা দিয়ে ঢেকে ঢাকনির চারপাশে পানি ছিটিয়ে দিন।৩-৪ মিনিট পর ঢাকনা খুলে নামিয়ে গরম গরম পরিবেশন করুন মজাদার কিমা চিতই।

ঝাল পোয়া পিঠা–

উপকরণ: আতপ চালের গুঁড়া ১ কাপ,সেদ্ধ চালের গুঁড়া ১ কাপ,ময়দা আধা কাপ,ডিম ২টি,পেঁয়াজ মিহি কুচি সিকি কাপ,কাঁচামরিচ কুচি ২ চা চামচ,ধনেপাতা কুচি ২ টেবিল চামচ।লবণ পরিমাণমতো,চিনি আধা চা চামচ,কুসুম গরম পানি পরিমাণমতো,বেকিং পাউডার আধা চা চামচ,তেল ভাজার জন্য।

প্রণালী–আতপ চাল ও সেদ্ধ চালের গুঁড়া, ময়দা, বেকিং পাউডার, চিনি একসঙ্গে খুব ভালো করে মিলিয়ে নিতে হবে।পেঁয়াজ, কাঁচামরিচ, ধনেপাতা, লবণ একসঙ্গে ভালো করে চটকিয়ে ডিম দিয়ে মাখিয়ে ময়দার মিশ্রণে মেলাতে হবে।প্রয়োজনমতো পানি দিতে হবে। গোলা করে নিতে হবে। খেয়াল রাখতে হবে, গোলা যেন খুব পাতলা না হয়ে যায়।তেল গরম করে সিকি কাপ পরিমাণ গোলা ছাড়তে হবে। পিঠা ফুলে উঠলে উল্টিয়ে দিয়ে কাঠি দিয়ে পিঠার মাঝখানে ছিদ্র করে ভেতরের বাতাস বের করে দিতে হবে।পিঠা ভাজা হলে চুলা থেকে নামিয়ে টমেটো সস অথবা গ্রিন চিলি সসের সঙ্গে পরিবেশন করা যায়

ঝাল বড়া–

উপকরণ: চালের আটা – ৬ চা চামচ,ডিম – ১ টি,লবণ – স্বাদ মতো,জিরে গুড়া – ১/২ চা চামচ,ধনে গুড়া – ১/২ চা চামচ,মরিচ গুড়া – ১ চা চামচ,হলুদ গুড়া – ১/২ চা চামচ,রসুন বাটা – ১/২ চা চামচ,আদা বাটা – ১/২ চা চামচ,সয়াবীণ তেল – ১ কাপ,

প্রণালী–সব উপকরণ সামান্য পানি দিয়ে এক সাথে মেখে নিন। কড়াইয়ে তেল দিন।তেল গরম হয়ে গেলে একে একে বড়ার আকারে দিয়ে দিন।মাঝারি আঁচে লাল করে ভেজে তুলুন।

ঝাল ভাপা–

উপকরণ: চালের গুঁড়া ৪ কাপ,লবণ আন্দাজমতো,ধনেপাতা কুচি ১ কাপ,কাঁচামরিচ কুচি দুটি ওপেঁয়াজ কুচি একটি।

প্রস্তুত প্রণালি–চালের গুঁড়ায় লবণ ও পানি মেশান। এমন আন্দাজে পানি মেশান, যেন গুঁড়া ভেজা মনে হয় অথচ দলা না বাঁধে।পানি মেশানোর পর হাত দিয়ে চালের গুঁড়া মসৃণ করে চেলে নিন। যে পাত্রে পিঠা তৈরি করবেন তাতে গলা পর্যন্ত পানি দিয়ে ফুটতে দিন।পিঠা তৈরির জন্য ছোট ছোট দুটি বাটি ও দুই টুকরো পাতলা কাপড় নিন। বাটিতে গুঁড়া দিয়ে মাঝখানে ধনেপাতা কুচি, কাঁচামরিচ কুচি ও পেঁয়াজ কুচি দিয়ে আবার গুঁড়া দিয়ে বাটি ভরে সমান করে দিন।চাপ দেবেন না।এক টুকরা কাপড় ভিজিয়ে নিংড়ে বাটির গুঁড়া ঢেকে দিয়ে উল্টে পিঠা তৈরির পাত্রের মুখে বসান। বাটি সাবধানে তুলে নিয়ে কাপড় দিয়ে পিঠা ঢেকে দিন।কিছুক্ষণ পর কাপড়সহ পিঠা তুলে নিন। অন্য বাটিতে একইভাবে চালের গুঁড়া ভরে আবার পাত্রের মুখে বসান। প্রতিবার কাপড় ভিজিয়ে নেবেন।পিঠা তৈরি হয়ে গেলে ধনেপাতা কুচি ছিটিয়ে গরম গরম পরিবেশন করুন।