fbpx

সংগ্রহে রাখুন সিম্পল ভাত দিয়ে ভিন্ন কিছু তৈরির ৭টি রেসেপি

তাওয়া পোলাও–

উপকরণ:২ টেবিল চামচ মাখন,২টি পেঁয়াজ কুচি,১.৫ টেবিল চামচ আদা রসুনের পেস্ট,১.৫ টি সবুজ ক্যাপসিকাম কুচি,৪টি টমেটো কুচি,ধনেপাতা কুচি,২ টেবিল চামচ পাও ভাজি মশলা,লবণ,২টি কাঁচা মরিচ কুচি,১ টেবিল চামচ পানি,১ কাপ সিদ্ধ মটরশুঁটি,২টি সিদ্ধ আলু কুচি,৩ কাপ ভাত,

প্রণালী:১। প্রথমে প্যানে মাখন বা তেল গরম করে নিন। এরপর এতে পেঁয়াজ কুচি দিয়ে দিন।২। পেঁয়াজ কুচি বাদামী হয়ে আসলে এতে আদা রসুনের পেস্ট দিয়ে দিন।৩। আদা রসুনের পেস্ট কিছুটা নরম হয়ে আসলে এতে ক্যাপসিকাম কুচি দিয়ে দিন।৪। এরপর এতে টমেটো কুচি, ধনেপাতা কুচি, পাও ভাজি মশলা, লবণ, কাঁচা মরিচ কুচি দিয়ে ভাল করে মিশিয়ে নিন।৫। টমেটো নরম হয়ে আসলে এতে পানি দিয়ে দিন।৬। এতে মটরশুঁটি, আলু দিয়ে ভাল করে মিশিয়ে নিন।৭। এরপর এতে ভাত, ধনেপাতা কুচি, লবণ ভাল করে মিশিয়ে কিছুক্ষণ নাড়ুন।৮। ব্যস তৈরি হয়ে গেল মজাদার তাওয়া পোলাও।

টমেটো ভাত–

উপকরণ:(১) ২ কাপ ভাত(২) এক টেবিল চামচ জিরা(৩) একটি তেজপাতা( ৪) ৬টি লবঙ্গ(৫) একটি দারুচিনির দুই ভাগ(৬) ২টি এলাচ(৭) ২টি পেঁয়াজ টুকরো(৮) এক টেবিল চামচ মরিচ, আদা, রসুন পেস্ট(৯) ১২ থেকে ১৫ টি পুদিনা পাতা(১০) আধা চা চামচ শুকনো মেথি(১১) এক টেবিল চামচ মরিচের গুড়া(১২) জিরার গুড়া মিশ্রিত এক চিম্টি রোস্ট(১৩) ২টি টমেটো টুকরা করা(১৪) এক টেবিল চামচ টুকরো ধনে পাতার সাথে টেস্টিং লবণ(১৫) এক টেবিল চামচ ঘি। ( আপনি তেলও ব্যবহার করতে পারেন),

প্রণালী:প্রথমে কড়াই-এ ঘি বা তেল গরম করে এর মাঝে জিরা ছেড়ে দিন।তারপর লবঙ্গ, দারুচিনি, এলাচ দিয়ে নাড়তে থাকুন।৩০ সেকেন্ড পর এর মাঝে পেঁয়াজ কুচি ঢেলে দিয়ে পাঁচ মিনিট ধরে নাড়তে থাকুন।যখন পেঁয়াজের রং লাল হয়ে আসবে তখন এর সাথে মরিচ, আদা, রসুন পেস্ট, পুদিনা পাতা ও মেথি দিয়ে নাড়তে থাকুন।এভাবে চার-পাঁচ মিনিট ধরে নাড়ুন। এরপর মরিচের গুড়া, ভাজা জিরার গুড়া ও টমেটোর টুকরোগুলো এর সাথে মিশিয়ে দিন।পরে টেস্টিং সল্ট মিশিয়ে মৃদু আঁচে নাড়তে থাকুন।একটু পর তাপ কমিয়ে এর মধ্যে ভাত ঢেলে দিন একটু নেড়ে নিন।ব্যস হয়ে গেল টমেটোভাত। এরপর বাটিতে নিয়ে এর উপর ধনে পাতার টুকরোগুলো ছেড়ে দিন।আর মজাদার এ খাবারটি গরম গরম পরিবেশন করুন আপনার ইচ্ছামত।

রান্না করা ভাত দিয়েই সম্ভব দারুণ কিছু–

উপকরণ:(১) যেকোন চাল এর রান্না করা ভাত – ১ কাপ(২) গাজর টুকরা , গ্রিন ক্যাপসিকাম টুকরা , মটরশুঁটি – ১/২ কাপ(৩) পেঁয়াজ টুকরা(৪) চেরি টমেটো টুকরা(৫) থাই গ্রিন পেস্ট – ২ চা চামচ(৬) গোলমরিচ গুঁড়া – ১ চা চামচ(৭) শুকনা মরিচ গুঁড়া – ১ চা চামচ (কম বেশি করা যাবে )(৮) লেবুর রস – ২ চা চামচ(৯) মাখন ৩ টেবিল চামচ(১০) লবন স্বাদ মতোথাই গ্রিন পেস্ট তৈরিতে যা যা লাগবে:(১) ১ মুঠো মিহি কুঁচি ধনিয়া পাতা(২) ১ চা চামচ ধনিয়া টালা(৩) হাফ কাপ রসুন কুঁচি(৪) ১ টা লেবু এর জেস্ট বা স্কিন গ্রেটার দিয়ে গ্রেট করা(৫) থাই পাতা / লেমন গ্রাস ২ স্টিক(৬) লবন অল্প(৭) ১ টা পেঁয়াজ(৮) ২ -৩ টা কাচা মরিচ(৯) ৩ টেবিল চামচ লেবুর রসএসব কিছু ব্লেন্ডারে খুব ভালোভাবে পিষে নিন।

প্রণালী:প্যান এ তেল দিয়ে পেঁয়াজের টুকরা দিন সাথে দিন গ্রিন কারি পেস্ট ।এবার একে একে সব সবজি ও রান্না করা ভাত , লবন দিয়ে ফ্রাইড রাইস এর মতোই রান্না করুন ।আমি একদম অল্প আঁচে বসিয়ে রান্না করেছি ।অল্প কিছুক্ষণ এর মধ্যে হয়ে যায় এই মজাদার রাইস।নামিয়ে চিকেন ফ্রাই কিংবা আপনার পছন্দ মতো কারির সাথে পরিবেশন করতে পারেন !

জিরা ভাত–

উপকরণ ও পরিমানঃ– পোলাও চাউলঃ ৭৫০ গ্রাম, ধুয়ে পানি ঝরিয়ে রাখুন। (চার জন পূর্ন বয়স্ক অনায়েশে শেষ করতে পারবে না), আপনি চাইলে খাবারের চাউল দিয়েও করতে পারবেন, অন্য একদিন সাধারণ খাবারের চাঊল দিয়ে দেখিয়ে দেব।– পেঁয়াজ কুচিঃ হাফ কাপ– শুকনা মরিচঃ ৮/১০টা (ভিতরের বিচি ফেলে দিতে পারেন)– জিরা গুড়াঃ এক টেবিল চামচ (জিরা টেলে বেঁটে গুড়া করলে ঘ্রান বেশ ভাল হয়)– হলুদ গুড়াঃ হাফ চা চামচ কম বেশি (এতে রংটা জমে উঠবে)– এলাচিঃ ৩/৪ টা– দারুচিনিঃ ৩/৪ পিস– লবঙ্গঃ ৪/৫ টা– লবনঃ পরিমান মত– তেলঃ হাফ কাপ কম বেশী– পানিঃ পরিমান মত, চাউলের উপর নির্ভর করবে

প্রণালীঃপাত্রে তেল গরম করে পেঁয়াজ কুঁচি, শুকনা মরিচ, এলাচি, দারুচিনি, লবঙ্গ ও সামান্য লবন যোগে ভাঁজুন, পেঁয়াজ হলদে হয়ে এলে জিরা গুড়া দিন। ভাঁজুন।এবার হলুদ গুড়া দিন। ভাঁজুন। আগুন মাঝারি আঁচে থাকবে।ভাঁজুন, এমনি একটা অবস্থায় এসে যাবে। এবার চাউল দিয়ে দিন। চাউল সহ ভাঁজুন। এবার পানি দিন।পানি চাউলের উপরে এক ইঞ্ছির মত হতে হবে, যারা পোলাউ রান্না করতে পারেন, আশা করি তাদের এই পানি দেয়ার সমস্যা হবে না! এই পানি চাউলের উপর নির্ভর করে, চাউল পুরাতন হলে পানি একটু বেশি লাগে। ঠিক এই সময়ে লবন দেখে নিন, এই পানি মুখে দিয়ে লবন লাগবে কি না বুঝতে পারবেন। পানিটা কটা হতে হবে। (ঠিক এই সময়েই ফাইন্যাল লবন দিন)আগুন মাঝারি আঁচে থাকবে। ঢাকনা দিন, মিনিট ১০ বা বেশি সময় লাগবে। খেয়াল রাখতে হবে। পানি কমে এও অবস্থায় এসে যাবে। নাড়িয়ে দিন।আরো কয়েক মিনিট রাখুন, তবে এই সময়ে চুলায় একটা তাওয়া দিন যাতে আগুন পাত্রে সরাসরি না লেগে তাপ লাগে। এটা অনেকটা দমের মত ব্যাপার। পাত্রের তলায় লেগে যাবার সুযোগ থাকবে না!ঝরঝরে হল কিনা দেখুন। নাড়িয়ে দিন। এই সময়ে যদি দেখেন, চাউল শক্ত আছে, তবে আরো পানি ছিটিয়ে দিন এবং নাড়িয়ে আবারো ঢাকনা দিয়ে কয়েক মিনিট রাখুন।এই নিন একদম ঝরঝরে ‘জিরা ভাত’।

লেবু ভাত–

উপকরণ :পোলাও চাল ২ কাপ,পানি ২ কাপ,চিনি ৩ টেবিল চামচ,লবণ স্বাদমতো,ঘি ২ টেবিল চামচ,লেবু পাতা ৬-৭টি,লেবুর খোসা কুড়ানো সামান্য,কাঁচামরিচ ২-৩টি।প্রণালি :চাল ভালো করে ধুয়ে পানি ঝরিয়ে নিন।চুলায় পাত্র দিয়ে ঘি দিন। ঘি গরম হলে চাল দিয়ে নেড়ে দিন যাতে দলা পাকিয়ে না যায়।এবার তাতে পানি, লবণ, চিনি, ২টি লেবুপাতা দিয়ে এরপর পাত্রে ঢাকানা দিয়ে রান্না করুন।পানি শুকিয়ে এলে ঢাকনা খুলে লেবুপাতা ও কুড়ানো লেবুর খোসা একটা পাতার উপরে রেখে সেটা ভাতের উপর রেখে ঢাকনা বন্ধ করে কিছুক্ষণ দমে রাখুন।কিছুক্ষণ পর নামিয়ে গরম গরম পরিবেশন করুন।

মালাই ভাত–

উপকরণ :মিনিকেট চাল ৫০০ গ্রাম,কলাই ডাল ১ কাপ,দুধ আড়াই কাপ,টমেটো ১টি,লবণ স্বাদমতো,মিহি আদা কুচি আধা চা চামচ।যেভাবে তৈরি করবেন–১. আধাসিদ্ধ করে ভাত রান্না করে নিন।২. ডাল ধুয়ে ১ ঘণ্টা ভিজিয়ে রেখে আধাসিদ্ধ করে দুধ মিশিয়ে পুরো সিদ্ধ করুন।৩. আদা কুচি, টমেটো কুচি, লবণ দিয়ে ভাতের সঙ্গে মিশিয়ে একটু দমে রেখে নামিয়ে মুরগির মাংসের সঙ্গে পরিবেশন করুন।

মশলা ভাত–

উপকরণ :২-৩টি শুকনো মরিচ,১ টেবিল চামচ ধনিয়া,৩-৪টি গোল মরিচ,১ ইঞ্চি দারুচিনি,২-৩টি এলাচ,২টি লবঙ্গ,১ টেবিল চামচ জিরা,১/৪ কাপ নারকেল কুচি,২-৩টি রসুনের কোয়া কুচি,১ টুকরো আদা,১/৪ চা চামচ হিং,১/৪ চা চামচ হলুদ গুঁড়ো,২টি কাঁচা মরিচ,কারি পাতা,১টি পেঁয়াজ,১/৪ কাপ মটরশুঁটি,১ কাপ ভাত,২ কাপ পানি,১টি আলু ভাঁজা,লবণ,১০০ গ্রাম পটল,

প্রণালী :প্রথমে লাল শুকনো মরিচ থেকে বীচি বের করে ফেলুন।এরপর একটি প্যানে মরিচ, ধনিয়া, গোল মরিচ, দারুচিনি, এলাচি, লবঙ্গ এবং জিরা দিয়ে ভাজুন।এরসাথে নারকেল কুচি দিয়ে দিন।কিছুটা ভাজা হয়ে গেলে ব্লেন্ডারে ব্লেন্ড করে পেস্ট করে নিন।গুঁড়ো হয়ে গেলে এতে আদা, রসুন, হলুদ গুঁড়ো, হিং এবং পানি দিয়ে দিন।আরেকটি প্যানে তেল গরম হয়ে আসলে এতে কাঁচা মরিচ, কারি পাতা, পেঁয়াজ কুচি, এবং ব্লেন্ড করা মশলা দিয়ে কিছুক্ষণ নাড়ুন।তারপর এতে ভেজানো চাল, মটরশুঁটি, লবণ এবং পানি দিয়ে দিন।চাল সিদ্ধ হয়ে আসলে চুলার তাপ কমিয়ে এতে ভাজা আলু এবং ভাজা পটল কুচি হয়ে দিন।ঢাকনা দিয়ে ২ মিনিট রান্না করুন।পরিবেশন প্লেটে ঢেলে পরিবেশন করুন মজাদার মশলা ভাত।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close