মজার রান্না ডেস্ক: শীতের শাকসবজি দিয়ে আমরা সাধারণত বিভিন্ন ধরনের ভর্তা, ভাজি ও মাছ রান্না করতে থাকি। তবে এই সাধারণ কিছু সবজি দিয়েও ভিন্ন ধরনের খাবার তৈরি করা যায়। চলুন, শীতের সাধারণ শাকসবজির কিছু অসাধারণ সবজির সাথে পরিচিত হয়ে নিই।

বেরওয়ান গোবি

মূল উপকরণ

ফুলকপির ৪টি মাঝারি সাইজের ফুল, লবণ ও হলুদ দিয়ে গরম পানিতে সেদ্ধ করে নিতে হবে।

তেল, ফুলকপি ডুবো তেলে ভাজার জন্য।

পুর তৈরির উপকরণ

আধা কাপ পনির, কুচি কুচি করে কেটে নেওয়া

কিসমিস, ১০-১৫টি

২-৩ টেবিল চামচ ডালিম

২-৩ টেবিল চাম কাজুবাদাম; কুচি কুচি করে কাটা

এক মুষ্টি কুচি ধনিয়া পাতা

২ টেবিল চামচ আদা; কুচি কুচি করে কাটা

৪ টেবিল চামচ ক্ষীর; টুকরো করে নেওয়া

ব্যাটার তৈরির উপকরণ

৩৫০ গ্রাম বেসন

২ টেবিল চামচ হলুদ গুঁড়া

লবণ, প্রয়োজনমতো

মরিচ গুঁড়া প্রয়োজনমতো

পানি প্রয়োজনমতো

প্রস্তুত প্রণালী

প্রথমে একটি পাত্রে পানি গরম করে তার মধ্যে লবণ, হলুদের গুঁড়ো ও ফুলকপি দিয়ে কিছুক্ষণ সেদ্ধ করতে হবে।

হালকা নরম হলে চুলা থেকে নামিয়ে আলাদা করে রাখতে হবে।

এরপর ব্যাটার তৈরির সবগুলো উপাদান একসাথে মিশিয়ে তার মধ্যে পানি দিয়ে হালকা ঘন ব্যাটার তৈরি করতে হবে।

এরপর পুর তৈরির সবগুলো উপাদান একসাথে করে হাত দিয়ে ভালোভাবে মেশাতে হবে। এরপর ফুলকপির মধ্যে নরম পুর ভরে ব্যাটারে চুবিয়ে তেলে ভেজে নিতে হবে।

ব্যস, হয়ে গেল বেরওয়ান গোবি।

মিষ্টি আলুর রাবদি

উপকরণ

১৫০ মিলিলিটার দুধ

২ টেবিল চামচ মিষ্টি আলু; সেদ্ধ করে চটকানো

১/২ চা চামচ চিনি

১/২ কাপ গরম পানি

১/২ চা চামচ এলাচ গুঁড়া

১ চা চামচ বিভিন্ন রকমের বাদাম

সামান্য জাফরান

প্রস্তুত প্রণালী

প্রথমে একটি পাতিলে দুধ গরম করতে হবে। এরপর দুধের মধ্যে মিষ্টি আলু ও চিনি ছেড়ে দিয়ে কিছুক্ষণ জ্বাল করতে হবে।

দুধ গরম ঘন হয়ে গেলে চুলার আঁচ কমিয়ে দিতে হবে।

এরপর গরম পানিতে জাফরান ছেড়ে দিতে হবে এবং পানির সাথে জাফরান ভালোভাবে মিশে গেলে সেটি দুধের মধ্যে ঢেলে দিতে হবে।

তারপর এলাচ গুঁড়ো দিয়ে ভালোভাবে নাড়তে হবে এবং তিন থেকে চার মিনিট রান্না করতে হবে।

সবশেষে পুরো রাবদি একটি বাটিতে রেখে তার ওপরে বাদাম ছিটিয়ে দিতে হবে ও ঠাণ্ডা করতে হবে। এরপর ১ ঘণ্টা ফ্রিজে রেখে পরিবেশন করতে হবে।

মুলার কোফতা

উপকরণ

আধা কেজি সাদা মুলা

১ টেবিল চামচ কোড়ানো নারকেল

১/২ টেবিল চামচ বাদাম

২ টেবিল চামচ ভাজা বেসন

১ চা চামচ গরম মসলা

২ পিস শুকনো মরিচ

পেঁয়াজ, ১টি

কাঁচা মরিচ, ১টি

১ টেবিল চামচ ধনিয়া পাতা

লবণ সামান্য

তেল; ভাজার জন্য

ঝোল বা গ্রেভি তৈরির উপকরণ

শুকনো মরিচ, ৪টি

১ চা চামচ রসুন বাটা

১ চা চামচ ধনে গুঁড়া

১/২ চা চামচ হলুদ গুঁড়া

১ চা চামচ আদা, কুচি

পেঁয়াজ ৩ স্লাইস

১০০ এমএল তেল

১২৫ এমএল টক দই

এলাচ ৪ পিস

প্রস্তুত প্রণালী

প্রথমে মুলা ছোট ছোট করে কেটে সেদ্ধ করে নিতে হবে। এরপর নারকেল, বাদাম, বেসন, গরম মসলা ও শুকনো মরিচ একসাথে গ্রাইন্ডারে পিষে নিতে হবে।

এরপর কাঁচা মরিচ, পেঁয়াজ ও ধনিয়া পাতা কুচি কুচি করে কেটে মসলার ও মুলার সাথে মেশাতে হবে। তারপর একটি কড়াইতে তেল গরম করে ডুবো তেলে ভাজতে হবে।

এরপর ঝোল রান্না করার জন্য শুকনো মরিচ, লবণ, রসুন, ধনিয়া গুঁড়া ও হলুদ গুঁড়া একসাথে করে গরম তেলে ভাজতে হবে। এরপর পেঁয়াজ দিয়ে পাঁচ মিনিট ভাজতে হবে।

তারপর টক দই, গরম মসলা, এলাচ ও আদা দিয়ে মেশাতে হবে। সবগুলো উপাদান ভালোভাবে নেড়ে ১৫০ এমএল পানি মিশিয়ে ২-৩ মিনিট রান্না করে এর মধ্যে মুলার কোফতা ছেড়ে দিতে হবে।

এরপর ৭-৮ মিনিট রান্না করে গরম গরম পরিবেশন করতে হবে।

বিটরুটের কাবাব

উপকরণ

১ কাপ বিটরুট কুচি

১/২ প্যাকেট ফার্ম টফু

১/২ টেবিল চামচ রসুন বাটা

১ টেবিল চামচ আমচুর গুড়

১ টেবিল চামচ আনার দানা, ভাজা ও ভাঙ্গা

১ চিমটি চাট মসলা

বিট লবণ প্রয়োজনমতো

১/৪ কাপ কাজুবাদাম কুচি

১/২ কাপ ওটসের গুঁড়া

তেল

প্রস্তুত প্রণালী

একটি বাটিতে বিটরুটি কুচি, টফু, রসুন বাটা, আমচুর, চাট মসলা, বিট লবণ ও আনারদানা একসাথে হাত দিয়ে মেশাতে হবে।

এরপর গোল চপের মতো করে তার মধ্যে পুর হিসেবে কাজুবাদাম কুচি দিতে হবে।

এরপর চপের উপর ওটসের গুঁড়া ছিটিয়ে দিতে হবে। তারপর চুলায় একটি তাওয়ায় তেল গরম করে হালকা করে ভেজে যেকোনো সস বা চাটনির সাথে পরিবেশন করুন।

মটরশুঁটির টিকা

মূল উপকরণ

৫০০ গ্রাম মটরশুঁটি, খোসা ছাড়ানো

২ টেবিল চামচ দেশি ঘি

১ টেবিল চামচ আদা, কুচি কুচি করে কাটা

কাঁচা মরিচ, স্বাদমতো

১ চা চামচ জিরা গুঁড়া

১/২ চা চামচ হলুদ গুঁড়া

১ টেবিল চামচ চাট মসলা

লবণ স্বাদমতো

ভাজা বেসন প্রয়োজনমতো

আলু ১টি

১ টেবিল চামচ টাটকা ধনেপাতা

তেঁতুলের চাটনি তৈরি উপকরণ

২ টেবিল চামচ তেতুল

২ টেবিল চামচ গুড়

১/২ চা চামচ গরম মসলার গুঁড়া

১/২ চা চামচ জিরা গুঁড়া

প্রস্তুত প্রণালী

প্রথমে মটরশুঁটি ও আলু একসাথে সেদ্ধ করতে হবে। এরপর মটরশুঁটি ও আলু আলাদাভাবে চটকাতে হবে বা ভর্তা করতে হবে।

এরপর কড়াইতে ঘি গরম করে আদা ও কাঁচা মরিচ ছেড়ে নিয়ে একটু নরম করে নিতে হবে। তারপর মটরশুঁটি দিয়ে কিছুক্ষণ রান্না করতে হবে।

এরপর বাকি মসলা যোগ করে আরো কিছু সময় রান্না করতে হবে।

মটরশুঁটি চুলা থেকে নামিয়ে বেসন, সেদ্ধ আলু ও ধনেপাতা দিয়ে একসাথে মেশাতে হবে। এরপর গোল চপের মতো করে টিকা বানাতে হবে।

এরপর কড়াইতে ঘি গরম করে তারমধ্যে টিকা ছেড়ে দিয়ে ভালোভাবে ভেজে নিতে হবে।

এরপর আরেকটি পাত্রে ১ কাপ পানিতে তেঁতুল ও গুড় একসাথে জ্বাল করতে হবে। এর মধ্যে গরম মসলার গুঁড়া ও জিরার গুঁড়া দিয়ে কিছুক্ষণ রান্না করতে হবে।

কিছুটা গাঢ় হয়ে আসলে চুলা থেকে নামিয়ে ঠাণ্ডা করে মটরশুঁটির টিকার সাথে পরিবেশন করতে হবে।