আলু-বেগুন-টমেটোর তরকারি

উপকরণ:

আলু – বড় ২টি

বেগুন -বড় ১টি

টমেটো – বড় ২টি

হলুদ, মরিচ ও জিরা গুড়া – ১ চা চামচ করে

আদা বাটা -১ /২ চা চামচ

পেঁয়াজ কুচি- ১/৪ কাপ

তেল -১ /৪ কাপ

গোটা কালোজিরা -১ চা চামচ

গোটা শুকনো মরিচ – ৪-৫টি

চিনি – সামান্য

লবণ -স্বাদ মতো

প্রণালী:
সবজি গুলো পছন্দ মতো কেটে ধুয়ে নিন ।

কড়াই এ অর্ধেক তেল গরম করে পেঁয়াজ কুচি ভেজে মশল্লা কষিয়ে আলু দিয়ে ঢেকে দিন ।

আলু সেদ্ধ হলে বেগুন ও টমেটো দিয়ে আবার ঢেকে দিন ।

প্রয়োজন হলে পানি দিতে পারেন ।

বেগুন ও টমেটো সেদ্ধ হলে চিনি দিয়ে নামিয়ে রাখুন ।

অন্য একটি কড়াই এ বাকি তেল গরম করে গোটা শুকনো মরিচ ও কালো জিরা ফোড়ন দিয়ে তরকারিতে ঢেলে ঢেকে দিন ।

সুন্দর একটা গন্ধ বেরোবে ।

যারা ঘি পছন্দ করেন ফোড়নটা ঘি দিয়ে দিবেন আরো মজা হবে ।

রসুন আর টমেটোর স্বাদে ভিন্নধর্মী এক চিকেন কারি

উপকরণ-

মুরগি একটা

টমেটো ১০-১২ টা

২ টা বড় পেয়াজ কুচি

রসুন ৫ -৬ কোয়া

এলাচি বাটা

রান্নার জন্য তেল

তেজপাতা দারুচিনি

মরিচ ৪- ৫ টা

প্রণালি-
-প্রথমে টমেটো গুলোকে সিদ্ধ করে নিন।

সিদ্ধ টমেটো ব্লেন্ডারে ৪ টা রসুন কোয়া দিয়ে সাথে ১ কাপ পানি দিয়ে ভালোভাবে ব্লেন্ড করে নিন।

-প্যানে তেল দিয়ে তাতে ২ কোয়া রসুন কুচি দিন।

এলাচি দারুচিনি তেজপাতা দিন।

নাড়াচাড়া করে পেয়াজ কুচি দিন।

-পেয়াজটা লাল লাল করে ভাজুন।

লবন স্বাদমত দিয়ে মুরগির পিস গুলা দিন।

কতক্ষণ ভাজুন.এবার ব্লেন্ড করা টমেটোটা দিয়ে দিন।

-আবার নাড়াচাড়া করে কাঁচা মরিচ দিয়ে রান্না করুন ২৫ মিনিট। ঝোলটা বেশি শুকাবেন না।

-এই তরকারী টা রুটির সাথে দারুন ভালো লাগে।

ভাতের সাথেও মজা। সালাদ, নান রুটির সাথে পরিবেশনের জন্য পারফেক্ট।

রুই কারী উইথ টমেটো সস

উপকরনঃ

রুই মাছ – ৫ টুকরা

পিঁয়াজ – কুচি ১/২ কাপ

জিরা বাটা ১ চা চামচ

আদা বাটা ১ চা চামচ

রসুন বাটা ১ চা চামচ

রুই কারী উইথ টমেটো সস ধনে বাটা ১/২ চা চামচ

হলুদের গুঁড়ি ১/২ চা চামচ

লবন স্বাদ মত

লাল মরিচ গুড়া ১/২ চা চামচ

কাঁচা মরিচ – ৬/৭ টি

টমেটো সস ৪ টেবিল চামচ

টমেটো – ১ টি সাজানোর জন্য

প্রণালীঃ
মাছ লবণ হলুদ মাখিয়ে ভেজে তুলে রাখুন।

তারপর কড়াইতে ১/২ কাপ দিয়ে পেয়াজঁ কুচি বাদামি করে ভাজুন।

পেয়াজঁ বাদামি হলে একে একে বাটা মসলা গুলো দিয়ে একটু কষিয়ে টমেটো সস দিয়ে দিন।

তারপর মশলা একটু কষিয়ে নিন।

এখন মাছ গুলো দিয়ে ২/১ নেড়ে ১ কাপ পনি ও কাঁচা ঝাল দিয়ে ঢেকে দিন।

মসলা মাখা মাখা হলে নামিয়ে পরিবেশন করুন।

টমেটো ডাল

উপকরণ :

মসুরের ডাল ২৫০ গ্রাম,

টমেটো ২০০ গ্রাম,

পেঁয়াজ টুকরো করা আধা কাপ,

কাঁচামরিচ ফালি করা ২-৪টি,

ধনেপাতা কুচি ২ টেবিল চামচ,

রসুন টুকরো করা ১ টেবিল চামচ,

লবণ স্বাদ অনুযায়ী,

সরিষার তেল পরিমাণমতো,

হলুদ গুঁড়ো ১ চা চামচ,

পানি পরিমাণমতো।

প্রস্তুত প্রণালি :

মসুরের ডাল পানি দিয়ে ধুয়ে রাখুন।

একটি কড়াইতে সরিষার তেল গরম করে তাতে পেঁয়াজের টুকরো ভেজে, মসুরের ডাল, রসুন টুকরো, হলুদ গুঁড়া এবং স্বাদ অনুযায়ী লবণ দিয়ে অর্ধেক রান্না করে তাতে টুকরো টমেটো, কাঁচামরিচ ফালি, ধনেপাতা কুচি এবং সামান্য পানি দিয়ে কিছুক্ষণ রান্না করে ডাল ঘন হয়ে এলে তা নামিয়ে পরিবেশন করুন।

রোদে পোড়া লবণ মাখানো টমেটো বাড়াবে খাবারের পুষ্টি ও স্বাদ

নানা ফুড চেনের পিৎজা, ইতালীয় খাবারে এমন টমেটো ব্যবহার করতে চাইলে বাড়িতেই মজুত রাখতে পারেন এটি। সহজ কয়েকটি উপায়ে সারা বছর বাড়িতে সংরক্ষণ করে রাখুন ও ব্যবহার করুন।

যেভাবে সংরক্ষণ করবেন

পাতলা টুকরো করে কেটে নিন টমেটো। এ বার এতে নুন ছিটিয়ে রোদে দিন। অনেকে স্বাদ বাড়াতে এতে যোগ করতে পারেন থাইম বা ওরেগ্যানো। খুব চড়া রোদে রাখবেন না, বরং হালকা রোদে রেখে খানিক ক্ষণ বাদে গিয়ে উল্টে দিন অপর পিঠ।

ব্যবহার

বাড়িতে বানানো টমেটো সসের রং আরও গাঢ় ও আকর্ষক করে তুলতে এই টমেটো ব্যবহার করুন।

পিৎজা, স্যান্ডউইচ বা স্যালাডে ব্যবহার করুন এই রোদে পড়া শুকনো টমেটো। এতে স্বাদ যেমন বাড়বে তেমনই রংও খোলতাই হবে।

পুষ্টিবিদদের মতে, রোদে পোড়া টম্যাটো শুধু স্বাদই বাড়ায় না, রান্নায় যোগ করে অতিরিক্ত পুষ্টিগুণও। তাই টমেটো ব্যবহার করা হয়, এমন যে কোনও রান্নায় কাঁচা টমেটোর বিকল্প হিসাবে ব্যবহার করুন এটি।

চাটনি ও আচারের রং আরও গাঢ় করতে ও স্বাদ বাড়াতে এর ব্যবহার করা হয় নানা রেস্তরাঁয়।

টমেটো পুরি

উপকরণ

ময়দা- ১.৫ কাপ

পাকা টমেটো- ২ টি

সুজি- ১.৫ টে.চা.

গরম মশলা গুঁড়ো- ১/২ টে.চা.

মরিচ গুঁড়ো- ১.৫ টে.চা.

ঘি- ১/২ টে.চা.

লবণ (পরিমাণমত)

পানি (পরিমাণমত)

তেল

রন্ধন প্রণালী

– টমেটো পানি ছাড়া ব্লেন্ড করুন এবং ছেঁকে নিন। একটি বোলে ময়দা, ব্লেন্ডেড টমেটো, সুজি, মরিচ গুঁড়ো, গরম মশলা গুঁড়ো, লবণ ও ঘি নিয়ে ভালো করে মিশিয়ে তাতে একটু একটু করে পানি নিয়ে মাখান এবং একটি সুন্দর ডো বানিয়ে ১০ মিঃ ঢেকে রাখুন।

– তারপর সেই ডো থেকে ছোট ছোট বল করে একটা একটা করে বেলে ছোট ছোট রুটির মত পুরিগুলোকে তৈরি করুন।

– এবার একটি কড়াইয়ে তেল গরম করুন এবং মাঝারি আঁচে পুরিগুলোকে ভাঁজুন। তৈরি হয়ে গেল মজাদার টমেটো পুরি।

বাতাসি মাছের টমেটো ঝোল

উপকরণ :

বাতাসি মাছ ২৫০ গ্রাম,

টমেটো পাতলা করে কাটা ২টি,

পেঁয়াজ কুচি ৩ টেবিল চামচ,

কাঁচামরিচ ফালি ৪-৫টি,

লবণ স্বাদ অনুযায়ী,

মরিচ গুঁড়া আধা চা চামচ,

সরিষার তেল ও

পানি পরিমাণমতো ।

প্রস্তুত প্রণালি :

মাছ কুটে নিন। এরপর লবণ দিয়ে ভালো করে ধুয়ে নিন। পানি ঝরিয়ে রাখুন।

একটি পাত্রে তেল গরম করে এতে কুচি পেঁয়াজ দিয়ে হালকা ভেজে নিন।

সব গুঁড়া মসলা, স্বাদ অনুযায়ী লবণ এবং টুকরা করা টমেটো দিয়ে ভালো করে কষিয়ে নিন।

মসলা কষানো হলে এতে মাছ বিছিয়ে দিন।

পরিমাণমতো পানি এবং ধনেপাতা কুচি ও কাঁচা মরিচ দিয়ে ঢেকে ৫ থেকে ১০ মিনিট রান্না করে নামিয়ে পরিবেশন করুন।

টমেটো গারলিক

উপকরণ :

টমেটো ৫টি, রসুন কুচি ২টি,

পেঁয়াজ কুচি ২টি,

অলিভ অয়েল ১ টেবিল চামচ,

ভিনেগার ১ টেবিল চামচ,

কাঁচামরিচ ২টি,

ধনেপাতা কুচি ১ টেবিল চামচ,

চিনি পরিমাণমতো,

লবণ স্বাদমতো।

যেভাবে তৈরি করবেন

১. কড়াইয়ে অলিভ অয়েল গরম করে পেঁয়াজ, রসুন ও মরিচের সঙ্গে একটু লবণ দিয়ে নাড়ুন।

২. টমেটো ধুয়ে টুকরো করে কড়াইয়ে কিছুক্ষণ নেড়ে ভিনেগার ও চিনি দিন।

৩. নামানোর আগে ধনেপাতা কুচি দিন।

৪. লুচির সঙ্গে পরিবেশন করুন।

লাউ-টমেটোর টক

উপকরণ:

লাউ টুকরো করা ২ কাপ, টমেটো ১ কাপ,

মুগডাল আধা কাপ, আদাবাটা আধা চা-চামচ,

রসুনকুচি ১ চা-চামচ, তেজপাতা ১টি,

হলুদগুঁড়া সামান্য, কাঁচা মরিচ ফালি ২টি,

তেঁতুলের মাড় ১ টেবিল-চামচ,

চিনি ১ টেবিল-চামচ (ইচ্ছা হলে), লবণ স্বাদমতো,

তেল ২ টেবিল-চামচ, পেঁয়াজকুচি ১ টেবিল-চামচ,

আস্ত জিরা ১ চিমটি। পানি প্রয়োজনমতো।

প্রণালি:

লাউ, টমেটো, ডাল, তেজপাতা, আদাবাটা, রসুনকুচি, লবণ, সামান্য হলুদ ও ২ কাপ পানি দিয়ে প্রেশারকুকারে অথবা সসপ্যানে সেদ্ধ দিতে হবে।

সবজি-ডাল ভালো করে সেদ্ধ হলে ফ্রাইপ্যানে তেল দিয়ে আস্ত জিরা ও পেঁয়াজকুচি দিয়ে ফোড়ন দিতে হবে।

তেঁতুলের মাড়, চিনি ও কাঁচা মরিচ দিয়ে নামিয়ে নিতে হবে।

টমেটোর আচার

উপকরন:

টমেটো ১ কেজি,

শুকনা মরিচ ৪-৫ টা,

সরিষার তেল ১ কাপ,

তেতুলের ক্বাথ আধা কাপ,

সিরকা আধা কাপ,

কাঁচা আদা ২ ইঞ্চি লম্বা ১ টা,

জিরা ১ টেবিল চামচ,

রসুন ৮ কোয়া,

সাদা সরিষা ১ টেবিল চামচ,

হলুদ আধা চা চামচ,

লবন পরিমানমতো,

চিনি সিকি কাপ,

পাঁচফোড়ন গুড়ো ১ টেবিল চামচ।

প্রণালী:
টমেটো ভালো করে ধুয়ে কুচি করে কেঁটে নিন।

আদা ও রসুন অর্ধেক পরিমান কুচি করে কেঁটে নিন।

বাকি আদা, সরিষা ও জিরা বেঁটে নিন।

কড়াইতে সরিষার তেল গরম করে সববাটা মশলা দিয়ে ভালো করে ভেজে নিন।

এরপর সিরকা ও লবন দিয়ে কিছু সময় নেড়ে কষাতে হবে।

তারপর টমেটো কুচি, ১ চা চামচ পাঁচফোড়ন গুড়ো, আদা, রসুনকুচি ও শুকনো মরিচ দিয়ে রান্না করুন।

চুলায় আঁচ বাড়িয়ে দিয়ে নাড়তে থাকুন।

পানি ও চিনি দিয়ে নাড়তে থাকুন।

একটু মাখা মাখা হলে বাকি পাঁচফোড়ন গুড়ো ছিটিয়ে দিয়ে চুলা বন্ধ করুন।

ঠান্ডা হলে একটি কাচের শুকনো বোতলে আচার ঢেলে বোতলের মুখ শক্ত করে আটকে ১০-১২ দিন কড়া রোদে দিন।

রসুন-টমেটোর ভর্তা

উপকরণ:

বড় টমেটো ২টি।

রসুন ২টি (খোসা ছাড়িয়ে নিতে হবে)।

আস্ত-লালমরিচ ৪,৫টি (ঝাল বুঝে কম বেশি)।

লবণ স্বাদ মতো।

ধনে ও জিরা টালা ১ চা-চামচ করে।

একটি পেঁয়াজের অর্ধেক দিতে হবে (মাঝারি আকারের)।

সরিষার তেল ১ টেবিল-চামচ।

প্রণালী:
২০ থেকে ২৫ মিনিট মরিচ ভিজিয়ে রাখুন।

এবার ব্লেন্ডারে আধা কাপ পানি দিয়ে মরিচ, রসুন, পেঁয়াজ, ধনে, জিরা ও টমেটোকুচি (দানা ফেলে), লবণ ব্লেন্ড করে নিন।

একটি প্যানে ব্লেন্ড করা মিশ্রণটি ঢেলে সরিষার তেল দিয়ে মিশিয়ে নিন।

তারপর মাঝারি আঁচে চুলার জ্বাল দিন।

মাঝে মাঝে নেড়ে দিতে হবে।

পানি শুকিয়ে ঘন সসের মতো হয়ে আসলে নামিয়ে নিন।

পরিবেশন করুন পোলাও, বিরিয়ানি বা সাদা ভাতের সঙ্গে।

টমেটো ভাত

উপকরণ:

(১) ২ কাপ ভাত

(২) এক টেবিল চামচ জিরা

(৩) একটি তেজপাতা

( ৪) ৬টি লবঙ্গ

(৫) একটি দারুচিনির দুই ভাগ

(৬) ২টি এলাচ

(৭) ২টি পেঁয়াজ টুকরো

(৮) এক টেবিল চামচ মরিচ, আদা, রসুন পেস্ট

(৯) ১২ থেকে ১৫ টি পুদিনা পাতা

(১০) আধা চা চামচ শুকনো মেথি

(১১) এক টেবিল চামচ মরিচের গুড়া

(১২) জিরার গুড়া মিশ্রিত এক চিম্টি রোস্ট

(১৩) ২টি টমেটো টুকরা করা

(১৪) এক টেবিল চামচ টুকরো ধনে পাতার সাথে টেস্টিং লবণ

(১৫) এক টেবিল চামচ ঘি। ( আপনি তেলও ব্যবহার করতে পারেন)

প্রণালী:
প্রথমে কড়াই-এ ঘি বা তেল গরম করে এর মাঝে জিরা ছেড়ে দিন।

তারপর লবঙ্গ, দারুচিনি, এলাচ দিয়ে নাড়তে থাকুন।

৩০ সেকেন্ড পর এর মাঝে পেঁয়াজ কুচি ঢেলে দিয়ে পাঁচ মিনিট ধরে নাড়তে থাকুন।

যখন পেঁয়াজের রং লাল হয়ে আসবে তখন এর সাথে মরিচ, আদা, রসুন পেস্ট, পুদিনা পাতা ও মেথি দিয়ে নাড়তে থাকুন।

এভাবে চার-পাঁচ মিনিট ধরে নাড়ুন। এরপর মরিচের গুড়া, ভাজা জিরার গুড়া ও টমেটোর টুকরোগুলো এর সাথে মিশিয়ে দিন।

পরে টেস্টিং সল্ট মিশিয়ে মৃদু আঁচে নাড়তে থাকুন।

একটু পর তাপ কমিয়ে এর মধ্যে ভাত ঢেলে দিন একটু নেড়ে নিন।

ব্যস হয়ে গেল টমেটোভাত। এরপর বাটিতে নিয়ে এর উপর ধনে পাতার টুকরোগুলো ছেড়ে দিন।

আর মজাদার এ খাবারটি গরম গরম পরিবেশন করুন আপনার ইচ্ছামত।

আপেল চিকেন টমেটো স্যুপ

উপকরণ:
১. চিকেন স্লাইস পাঁচটি

২. অলিভ অয়েল এক টেবিল চামচ

৩. পেঁয়াজ কুচি একটির অর্ধেক

৪. রসুন কুচি দুই চা চামচ

৫. মুরগির মাংস সেদ্ধ করা পানি দুই কাপ

৬. সিরকা দুই চা চামচ

৭. মটরশুঁটি এক টেবিল চামচ

৮. ডাঁটাশাক কুচি এক টেবিল চামচ

৯. তেজপাতা একটি

১০. আপেল স্লাইস করা একটি

১১. লবণ ও গোলমরিচের গুঁড়া পরিমাণমতো

১২. তেল (চিকেন ভাজার জন্য)

প্রণালি:
প্রথমে কড়াইয়ে তেল গরম করে চিকেন ভাজুন।

চিকেন খয়েরি হলে অতিরিক্ত তেল ঝরিয়ে চিকেনের কিমা তৈরি করুন।

ফ্রাইপ্যানে অলিভ অয়েল গরম করে পেঁয়াজ ও রসুন তিন থেকে পাঁচ মিনিট ভাজুন।

মাংস সেদ্ধ পানি, মটরশুঁটি, টমেটো পিউরি, শাক ও তেজপাতা যোগ করুন।

মিশ্রণ ফুটতে শুরু করলে আঁচ কমিয়ে দিন।

আরেকটি পাত্রে সিরকা গরম করে আপেল ভাজুন।

আপেল নরম হলে শাকের মিশ্রণে ঢেলে দিন।

এরপর চিকেন যোগ করুন।

লবণ ও গোলমরিচ দিয়ে রাঁধতে থাকুন

চিকেন নরম হলে নামিয়ে গরম গরম পরিবেশন করুন।

টমেটো স্যুপ

উপকরণঃ

টমেটো (ছোট কিউব) – ১ কাপ

চিকেন স্টক – ৫ কাপ

পেঁয়াজ কুচি – ১/২ কাপ

কাঁচামরিচ কুচি – ১ টেবিল চামচ

আদা কুচি – ১ চা চামচ

রসুন কুচি – ১ চা চামচ

ধনেপাতা কুচি – ২ টেবিল চামচ

কর্ণফ্লাওয়ার – ২ টেবিল চামচ

গোলমরিচ গুঁড়া – ১/২ চা চামচ

টমেটো সস – ৩ টেবিল চামচ

সয়াসস – ১ চা চামচ

লেবুর রস – ১ টেবিল চামচ

ডিম (ফেটানো) – ১টি

অলিভ অয়েল – ২ টেবিল চামচ

টেস্টিং সল্ট – সামান্য

চিনি – ১ চা চামচ

লবণ – স্বাদমতো

স্টকের জন্যঃ

চিকেন (ছোট কিউব) – ১ কাপ

পানি – ১০ কাপ

আদা+রসুন বাটা – ১/২ চা চামচ করে

সয়াসস – ১ টেবিল চামচ

লবণ – ১ চা চামচ

একটি বড় পাত্রে স্টকের সব উপকরণ দিয়ে ফুটাতে হবে। পানি শুকিয়ে অর্ধেক হলে নামাতে হবে। পানি ছেঁকে চিকেন আলাদা রাখতে হবে। আধা কাপ পরিমাণ স্টকে

কর্ণফ্লাওয়ার গুলিয়ে রাখতে হবে।

প্রণালীঃ
১. প্যানে তেল গরম করে পেঁয়াজ, আদা, রসুন কুচি ১ মিনিট ভেজে তাতে টমেটো কিউব, তুলে রাখা চিকেন, টমেটো সস দিয়ে আরও ২-৩ মিনিট ভেজে স্টক ঢেলে দিতে হবে।

২. বলক এলে লবণ, চিনি, টেস্টিং সল্ট, সয়াসস, গোলমরিচ গুঁড়া ও কাঁচামরিচ কুচি দিয়ে ফুটাতে হবে।

৩. গুলানো কর্ণফ্লাওয়ার দিয়ে নাড়তে হবে।

৪. ঘন হয়ে এলে একটু একটু করে ডিম দিয়ে দ্রুত নাড়তে হবে।

৫. লেবুর রস ও ধনেপাতা কুচি দিয়ে নামিয়ে গরম গরম পরিবেশন করতে হবে।

টমেটো কেচাপ

উপকরণ:
৩ কাপ ফ্রেশ টমেটো পিউরি,

২-৩ টেবিল চামচ চিনি,

১ চিমটি আদা গুঁড়ো,

১ চিমটি লাল মরিচ গুঁড়ো,

১ চিমটি গোল মরিচ,

১ চা চামচ ভিনেগার

প্রণালী:

১। একটি নন স্টিক প্যানে টমেটো পিউরি দিয়ে দিন। এটি ১০ থেকে ১৫ মিনিট রান্না করুন। রান্নার সময় ভাল করে নাড়তে থাকুন।

২। ঘন হয়ে আসলে টমেটো পিউরি নামিয়ে ফেলুন

৩। এরপর আরকেটি প্যানে পিউরি, চিনি দিয়ে ভাল করে নাড়তে থাকুন।

৪। চিনি গলে সস ঘন হয়ে আসলে চুলার আঁচ কমিয়ে দিন।

৫। সস ঘন হয়ে আসলে এতে আদা গুঁড়ো, লাল মরিচ গুঁড়ো, গোলমরিচ দিয়ে ভাল করে মিশিয়ে নিন।

৬। এটি ২ থেকে ৩ মিনিট রান্না করুন।

৭। ঘন হয়ে আসলে চুলা নিভিয়ে দিন।

৮। শেষে ভিনেগার দিয়ে দিন। এটি প্রিজারভেটিভ হিসেবে কাজ করে থাকবে।

৯। ব্যস তৈরি হয়ে গেল বাজারের মত টমেটো কেচাপ।

টমেটো সহ ভিন্নধর্মী ডিম ভাজি

উপকরণ:
* ডিম- ৩ টি

* পিঁয়াজ কুঁচি- ৩ টি

* কাঁচা মরিচ- ইচ্ছামত

* পিঁয়াজ কলি -ঐচ্ছিক

* জিরা বাটা- হাফ চামুচ

* লবণ- স্বাদ মত

* টমেটো কুঁচি- ১ টি

প্রণালী:
◘ প্রথমে সব উপকরণ এক সঙ্গে কেটে নিন

◘ একটি বাটিতে ডিম গুলো ভেঙ্গে নিন

◘ তাতে এক এক করে সব উপকরণ দিন এবং স্বাদ মত লবণ দিন (৪নং ছবির মত)।

◘ একটি কাটা চামুচ বা হাত দিয়ে খুব ভাল ভাবে মিক্স করুন ।

◘ এরপর একটি ফ্রাইপ্যানে পরিমাণ মত তেল দিন। তেল গরম হওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করুন।

◘ এরপর গুলে রাখা ডিম গুলো ফ্রাইপ্যানে ঢেলে দিন। চুলোর আঁচ কমে দিন ।

◘ কিছুক্ষণ পর এক পিঠ হয়ে আসলে অন্য পিঠে উল্টে দিন। আপনার প্রয়োজন মত কালার দেখে নামিয়ে ফেলুন খুব সহজ এবং মজাদার টমেটো দিয়ে ডিম ভাঁজি।

◘ ইচ্ছে মত সাইজ করুন।

◘ এবার রুটির সাথে কিংবা খিচুড়ির সাথে মজা করে খান টমেটো ডিম ভাজি ।

টমেটো দিয়ে গরুর মাংস

উপকরণ:

গরুর মাংস ১ কেজি,

টমেটো (মাঝারি) ৫ থেকে ৬টি (কিউব করে কাটা),

টমেটো পেস্ট ১ কাপ,

পেঁয়াজ বাটা আধা কাপ,

আদা বাটা ২ টেবিল-চামচ,

রসুন বাটা ১ চা-চামচ,

মরিচগুঁড়া ১ টেবিল-চামচ,

জিরাগুঁড়া ১ চা-চামচ,

গরম মসলার গুঁড়া ১ চা-চামচ,

তেল আধা কাপ,

পরিমাণমতো পানি,

লবণ স্বাদমতো,

সামান্য চিনি।

প্রণালি:
১. গরুর মাংস ধুয়ে পানি ঝরিয়ে নিতে হবে।

২. কড়াইতে তেল নিয়ে একে একে সব মসলা ও টমেটো পেস্ট দিয়ে গরুর মাংস কষিয়ে নিন।

৩. এবার পরিমাণমতো পানি দিয়ে ঢেকে দিন।

৪. ৩০ থেকে ৪০ মিনিট পর মাংস সেদ্ধ হয়ে গেলে টমেটোর টুকরাগুলো দিয়ে কিছুক্ষণ রান্না করে নামিয়ে নিন।

টমেটো এগ রাইস পুডিং

উপকরণ :

চালের গুঁড়া ভাজা ২ কাপ,

চিকেন কিমা ২ কাপ,

পেঁয়াজ কুচি ১ টেবিল চামচ,

ধনেপাতা কুচি ১ টেবিল চামচ,

কাঁচামরিচ কুচি ১ চা চামচ,

লবণ স্বাদ অনুযায়ী,

চাট মসলা ১ চা চামচ,

সিদ্ধ ডিম ২টি গোল গোল করে কাটা,

মাখন ১ টেবিল চামচ,

চিনি সামান্য,

টমেটোর রস পরিমাণমতো।

বিট লবণ সামান্য,

আদা বাটা আধা চা চামচ,

রসুন বাটা আধা চা চামচ,

পানি পরিমাণমতো।

প্রণালি :
প্রথমে চিকেন কিমা, সব বাটা মসলা, স্বাদ অনুযায়ী লবণ এবং পরিমাণমতো পানি ও তেল দিয়ে ভালো করে ভুনা ভুনা করে রান্না করে ফেলুন।

পরিমাণমতো পানি, বিট লবণ এবং টমেটো দিয়ে ব্লেন্ডারে ব্লেন্ড করে তৈরি করুন টমেটোর রস।

এখন সব উপকরণ একসঙ্গে মাখিয়ে তৈরি করুন একটি ঘন মিশ্রণ।

একটি পুডিং বাটিতে সামান্য চিনি এবং মাখন দিয়ে ক্যারাসেল করে সিদ্ধ ডিমের টুকরোগুলো বিছিয়ে দিয়ে ওপরে ঢেলে দিন তৈরি করা টমেটো ও চালের মিশ্রণ।

বাটির ঢাকনা বন্ধ করে দিন।

একটি কড়াইয়ে পরিমাণমতো পানি দিয়ে মাঝখানে পুডিংয়ের বাটির ওপরে একটি ভারী কোনো জিনিস চেপে দিন।

এভাবে প্রায় ১ ঘণ্টা ভাপে রেখে তৈরি করে নামিয়ে পরিবেশন করুন টমেটো এগ রাইস পুডিং।

বিফ টমেটো পুর

উপকরণ :

বিফ কিমা ২৫০ গ্রাম,

পেঁয়াজ কুচি আধা কাপ,

ধনেপাতা কুচি ২ টেবিল চামচ,

কাঁচামরিচ কুচি ১ চা চামচ,

লবণ স্বাদ অনুযায়ী,

আদা বাটা ১ চা চামচ,

রসুন বাটা ১ চা চামচ,

গরম মসলা গুঁড়া ১ চা চামচ,

মাঝারি আকারের টমেটো ৭-৮টি

সামান্য তেল।

টমেটো সস পরিমাণমতো।

প্রণালি:
প্রথমে বিফ কিমা ভালো করে ধুয়ে নিন।

পানি ঝরিয়ে রাখুন। ফ্রাইপ্যানে তেল গরম করুন।

এতে একে একে সব উপকরণ একসঙ্গে দিয়ে ভালো করে কষাতে থাকুন।

বিফ কিমা বেশ ভুনা ভুনা হয়ে এলে নামিয়ে রাখুন।

তারপর টমেটোগুলো ভালো করে ধুয়ে নিন।

টমেটোর ওপরের অংশ অনেকটা ঢাকনির মতো কেটে নিয়ে ভেতরের বীজগুলো বের করে দিন।

এখন রান্না করা বিফ কিমার পুর টমেটোর ভেতরে ভরে ওপরে সস, ধনেপাতা ও কাঁচামরিচ কুচি দিয়ে পরিবেশন করুন।

শিম টমেটো মাখামাখি

উপকরণ :

শিম ৩০০ গ্রাম,

টমেটো ২০০ গ্রাম,

ধনেপাতা কুচি ১ টেবিল চামচ,

কাঁচামরিচ ২টি,

রসুন বাটা ১ চা চামচ,

হলুদ গুঁড়া ১ চা চামচ,

মরিচ গুঁড়া ১ চা চামচ,

লবণ স্বাদ অনুযায়ী

তেল ও পানি পরিমাণমতো।

পেঁয়াজ কুচি ২ টেবিল চামচ,

জিরা গুঁড়া আধা চা চামচ।

প্রস্তুত প্রণালি :
প্রথমে সব তরকারি ভালো করে পানি দিয়ে ধুয়ে নিন।

টমেটো ও শিম বড় বড় টুকরা করুন।

একটি কড়াইয়ে তেল গরম করুন।

তেলে পেঁয়াজ হালকা ভেজে তাতে সব বাটা ও গুঁড়া মসলা এবং স্বাদ অনুযায়ী লবণ দিয়ে মসলা কষিয়ে নিন।

তাতে শিম ও টমেটো এবং পরিমাণমতো পানি দিয়ে তরকারি ঢেকে রান্না করুন ১০ মিনিট।

তরকারি মাখামাখা হয়ে এলে এতে ধনেপাতা কুচি, কাঁচামরিচ এবং জিরা গুঁড়া দিয়ে নামিয়ে পরিবেশন করুন।

টমেটো-মটরশুঁটি দিয়ে ঝাল পাঙ্গাস ভুনা

উপকরণ:

পাঙ্গাস মাছ ৬ -৮ পিস

পেঁয়াজ কুচি ১/২ কাপ

আদাবাটা ১/২ চা চামচ

রসুন বাটা ১/৪ চা চামচ

গরমমশলা গুড়া ১ /৪ চা চামচ

মরিচ গুড়া ১/২ চা চামচ

হলুদ গুড়া ১/২ চা চামচ

জিরা গুড়া ১ চা চামচ

ধনে গুড়া ১/৪ চা চামচ

কাঁচামরিচ ৮ টি

টোম্যাটো ২ টি ফালি করা

মটরশুঁটি ১ কাপ

তেল ১/৪ কাপ

লবন পরিমাণ মত

প্রনালি:
১। মাছে লবন হলুদ মেখে ১০/১৫ মিনিট পর হালকা বাদামি করে ভেজে নিতে হবে।

২। হাড়িতে তেল গরম করে তাতে পেঁয়াজ কুচি বাদামি করে ভেজে টোম্যাটো ও একে একে বাকি মশলা দিয়ে ভাল করে কশাতে হবে।

মাঝে মাঝে হাতের মুঠোই করে পানি ছিটিয়ে দিবেন, যাতে মশলা পুড়ে না যায়।

৩। মশলার গা থেকে তেল আলাদা হলে মটরশুঁটি দিয়ে একটু কষিয়ে নিয়ে ১ কাপ পানি দিন।

ফুটে উঠলে মাছ ও কাঁচামরিচ দিয়ে ঢেকে আঁচ কমিয়ে দিবেন।

৪। ৫ মিনিট পর ঢাকনা খুলে সাবধানে মাছ গুলো উল্টে আবার ঢেকে দিন।

২/৩ মিনিট পর ঢাকনা সরিয়ে ফেলুন, ততক্ষনে ঝোল গাড় হয়ে যাবে।

ধনেপাতা কুচি থাকলে উপরে ছড়িয়ে নামিয়ে ফেলুন।

খিরা টমেটোর রাইতা

উপকরণ:

খিরা- ২ টি

টমেটো- ৩ টি

পেয়াজ- ১ টি

টকদই- ২ কাপ

কাচা মরিচ বাটা- ১ চা চামচ

চিনি- ১ চা চামচ

ধনেপাতা- সাজানোর জন্য

লবন- পরিমান মত

প্রনালী-

প্রথমে খিরা, টমেটো আর পেয়াজ কুচি করে নিতে হবে।

এবার টকদই এর সাথে কাচা মরিচ বাটা, চিনি আর লবন মিশিয়ে খিরা আর টমেটোর সাথে মিশিয়ে নিতে হবে।

তারপর সুন্দর বাটিতে ঢেলে ধনেপাতা দিয়ে পরিবেশন করতে হবে।

টমেটো গাজরের সুপ

উপকরণ:

টমেটো ৪টি

গাজর ২টি

পেঁয়াজ ১টি

রসুনের ৩ কোয়া

তেজপাতা ১টি

গোলমরিচ গুঁড়া ১/৪ চা-চামচ

ভেজিটেবল অথবা চিকেন স্টক ২ কাপ

তেল ২ চা-চামচ

লবণ স্বাদ মতো

ধনেপাতা সাজানোর জন্য।

পদ্ধতি:

টমেটো ও গাজর কিউব করে কেটে নিন।

প্যানে তেল গরম করে পেঁয়াজকুচি, রসুন, টমেটো, গাজর আর তেজপাতা দিন।

সামান্য লবণ আর ১ কাপ চিকেন স্টক দিয়ে ফুটতে দিন ১৫ মিনিটের মতো।

১৫ মিনিট পর ঠাণ্ডা করে ব্লেন্ড করে নিন।

তারপর এই মিশ্রণ আবার প্যানে দিয়ে বাকি এক কাপ স্টক দিয়ে ফুটতে দিন।

একবার ফুটে উঠলে গোলমরিচের গুঁড়া আর লবণ দিয়ে নামিয়ে নিন।

হয়ে গেলে উপর দিয়ে ধনেপাতার কুচি ছড়িয়ে পরিবেশন করুন গরম গরম এই সুপ।

পাস্তা উইথ টমেটো সস

উপকরণ:

পাস্তা ৫০০ গ্রাম

পেঁয়াজ কুচি ১ টেঃ চামচ

টমেটো ৪ টি

গোলমরিচ গুঁড়া ১/২ চাঃ চামচ

মুরগির বুকের মাংস (কিমা) ১ কাপ

টমেটো সস ১ টেঃ চামচ

রসুন পেস্ট (১ চাঃ চামচ)

কর্ণফ্লাওয়ার গুলানো ১ টেঃ চামচ,

শুকনো মরিচ গুঁড়ো ১/২ চাঃ চামচ

তেল ৩ টেঃ চামচ

লবণ পরিমাণমত

প্রণালী:

মুরগির বুকের মাংস ধুয়ে রাখুন।সেই সাথে পেঁয়াজ, কাচামরিচ, টমেটোকুচি ধুয়ে রাখুন।

প্রথমে পাস্তা সেদ্ধ করে পানি ঝরিয়ে সার্ভিং ডিশে ঢেলে নিন।

টমেটো ২ মিনিট সেদ্ধ করে ওপরের খোসা ফেলে ব্লেন্ডারে ব্লেন্ড করে নিন।

ফ্রাইং প্যানে তেল দিয়ে তাতে ব্লেন্ড করা টমেটো দিয়ে তাতে মুরগির কিমা দিয়ে ২ মিনিট রান্না করুন।

কর্ণ ফ্লাওয়ার বাদে বাকি সব উপকরণ দিয়ে ৬ মিনিট রাঁধুন।

তারপর গুলানো কর্ণফ্লাওয়ার মিশিয়ে ঘন করুন।

এবার সার্ভিং ডিশে রাখা সিদ্ধ পাস্তায় মুরগির গ্রেভি ঢেলে গরম গরম পরিবেশন করুন মজাদার পাস্তা।

ডিম টমেটো সুপ

উপকরণ:

টমেটো বড় ৩ টি

পেঁয়াজ কুচি ১ টি

তেল ১ টেঃ চামচ

চিকেন স্টক ৫ কাপ

সয়াসস, লাইট ১ টেঃ চামচ

সিরকা বা ভিনেগার ২ চা চামচ

সাদা গোলমরিচ গুুঁড়া ১/৪ চা চামচ

ডিমের সাদা অংশ তিনটি

চিনি প্রয়োজন মতো

লবণ স্বাদ অনুযায়ী

ধনেপাতা, কুচি সাজাবার জন্য

প্রণালী:
ফুটানো পানিতে টমেটো দিন।

পাতলা খোসা ফেটে গেলে টমেটো তুলে খোসা ছাড়ান।

তেলে পেঁয়াজ ভাজুন।

নরম ও চকচকে হলে চিকেন স্টক, সয়াসস, সিরকা, গোলমরিচ এবং পরিমাণ মতো লবণ ও চিনি দিন।

ফুটে উঠার পরে মৃদু আঁচে ১০ মিনিট রাখুন।

ডিমের সাদা অংশ অল্প ফেটুন।

উপর থেকে ধীরে ধীরে সুপে ডিমের সাদা অংশ ঢেলে দিন।

নাড়বেন না। ডিম জমার জন্য ১ মিনিট অপেক্ষা করুন।

টমেটো দিয়ে ৩ মিনিট মৃদু আঁচে ফুটাও।

১ মিনিট পরে সুপের চিনি ও লবণ ঠিক হলো কিনা দেখে নামান

টমেটো অমলেট

উপকরণ :

ডিম ২টি

পেঁয়াজ (কুচি ) ১টি

কাঁচামরিচ কুচি পরিমানমত

তেল ভাজার জন্য

ধনেপাতা কুচি ২চা চামচ

টমেটো কুচি ২টেবিল চামচ

লবণ পরিমানমত

প্রনালি:
ডিম কাঁটা চামচ দিয়ে ফেটান।

পেঁয়াজ, কাঁচামরিচ, ধনেপাতা ও লবণ

একসাথে মিশান।

ফ্রাইপ্যানে তেল গরম করুন।

প্যান ঘুরিয়ে ডিম ছড়িয়ে দিন। আঁচ কম রাখুন।

ডিমের উপর টমেটো ছড়িয়ে দিন।

ডিমের নীচের অংশে হালকা বাদামী রং ধরলে দুভাজঁ

করে গরম প্লেটে তোলে নিন।