সরিষা দিয়ে ঢেঁড়স চচ্চড়ি– উপকরণ:ঢেঁরশ ২৫০ গ্রাম,পিয়াজবাটা ২ টে- চামুচ ,মরিচগুড়া,জিরারগুড়া আধা চা-চামুচ ,হলুদ গুড়া সামান্য,রশুনবাটা সামান্য,কাঁচামরিচ ৪/৫ টা,শরিষা ২ টে- চামুচ,তেল,লবন পরিমানমত।

প্রনালী :ঢেঁরশ ( কঁচি, সুন্দর কালার ) ধুয়ে ২ পিচ করে কেটে নিন।এবারে ফাই প্যনে বা কড়ায়ে তেল দিয়ে সমস্ত মশলা ও ঢেঁরশ দিয়ে হাত দিয়ে মাখিয়ে অল্প পানি দিয়ে ঢেকে দিন ( ছোটমাছ যে ভাবে করা হয়) জ্বাল কম করে দিন।ঢেঁরশের সবুজ রঙ যেন ঠিক থাকে তাহলে দেখতে ও খেতে ভাল লাগরে।ঢাকনা খুলবেন না।কিছুখন পর ঢেঁরশ সেদধ হয়ে এলে, পানি শুকিয়ে মাখমাখ হলে ঝাল,লবন চেখে নামিয়ে নিন।

চিংড়ির বাটি চচ্চড়ি–  উপকরণ :চিংড়ি মাছ ১ কাপ (মাঝারি),নারকেলবাটা ২ টেবিল চামচ,সর্ষে বাটা ১ চা-চামচ,কাঁচা লংকা বাটা ২টি,হলুদগুরো ১ চা-চামচ,সর্ষের তেল ৩ টেবিল চামচ,লবণ স্বাদমতো,কাঁচা মরিচ ফালি ২-৩টি।

প্রণালি : ওপরের সব উপকরণ একসঙ্গে মেখে একটি ঢাকনাযুক্ত স্টিলের বাটিতে দিয়ে প্রেশার কুকারে ভাপে সেদ্ধ করে নিন।গরম ভাতের সঙ্গে পরিবেশন করুন চিংড়ির বাটি চচ্চড়ি।

সরষেবাটায় শজনে চচ্চড়ি– উপকরণ :শজনে ১ কাপ,আলু ১টি,সরষেবাটা ২ টেবিল চামচ,মরিচগুঁড়া আধা চা-চামচ,হলুদগুঁড়া আধা চা-চামচ,জিরাবাটা সামান্য,লবণ স্বাদমতো,কাঁচা মরিচ ৩-৪টি,তেল প্রয়োজনমতো ও পানি ২ কাপ।

প্রণালি- কড়াইয়ে তেল দিয়ে তাতে পেঁয়াজ, রসুন, মরিচ, হলুদ, জিরা, লবণ ও সামান্য পানি দিয়ে কষিয়ে নিন।তারপর আলুর টুকরো দিয়ে একটু কষিয়ে শজনে দিয়ে নেড়ে ২ কাপ পানি দিতে হবে।শজনে সেদ্ধ হয়ে এলে সরষেবাটা ও কাঁচা মরিচ দিয়ে নামিয়ে নিন।গরম ভাতের সঙ্গে পরিবেশন করুন।

চিংড়ি-শাপলা লতার চচ্চড়ি– উপকরণ :শাপলা লতা ৩৫০ গ্রাম বা এক আঁটি ,মাঝারি চিংড়ি ৫টি,কোরানো নারকেল আধা কাপ,পেঁয়াজ কুচি আধা কাপ,সয়াবিন তেল আধা কাপ,চেরা কাঁচা মরিচ ৪টি,হলুদ গুঁড়া আধা চা-চামচ,লাল মরিচের গুঁড়া ১ চা-চামচ,আদা বাটা আধা চা-চামচ,রসুন বাটা ১ চা-চামচ,টমেটো বাটা সিকি কাপ,লবণ আধা চা-চামচ,চিনি ১ চা-চামচ অথবা স্বাদ অনুযায়ী।

প্রণালি :শাপলা লতা বেছে দেড় ইঞ্চি লম্বা করে কেটে ধুয়ে চুলায় ফুটন্ত পানিতে ছেড়ে দিন। দু-একবার ফুটে উঠলে নামিয়ে পানি ঝরিয়ে নিন।পরিষ্কার করা চিংড়ি মাছগুলো সিকি চা-চামচ হলুদ ও সিকি চা-চামচ লবণ দিয়ে মেখে কড়াইয়ে তেল গরম করে ভেজে উঠিয়ে রাখুন।একই তেলে পেঁয়াজ কুচি দিয়ে ভেজে নিন। সিকি চা-চামচ লবণ দিয়ে আরও কিছুক্ষণ নেড়ে আদা-রসুন বাটা, হলুদ-মরিচের গুঁড়া, চিনি এবং সামান্য পানি দিয়ে কষিয়ে নিন।এবার টমেটো বাটা দিয়ে আরও কিছুক্ষণ ভালো করে কষিয়ে নিন। মসলা কষানো হয়ে গেলে শাপলা ও চিংড়ি মাছগুলো দিয়ে নাড়ুন।এবার কোরানো নারকেল, বাকি সিকি লবণ এবং কাঁচা মরিচ দিয়ে ভালো করে মিশিয়ে নেড়ে আঁচ কমিয়ে ঢেকে দিন।কিছুক্ষণ পর ঢাকনা খুলে আরেকবার নেড়ে পুনরায় ঢেকে দিন। পানি টেনে মাখা মাখা হলে নামিয়ে গরম ভাত বা রুটির সঙ্গে পরিবেশন করুন।পরামর্শ :শাপলা লতা কুটে বেছে নিতে নিতে খুব অল্প সময়ের মধ্যে একটা লালচে কালো আবরণ পড়ে যায়। ফুটানো পানিতে দিয়ে ভাপিয়ে নিলে সেটা আবার টাটকা সবুজ রং ধারণ করবে। যেহেতু এটা পানিতে জন্মায়, তাই এর সেই নিজস্ব একটা মেটে গন্ধ আছে, ভাপিয়ে পানিটা নিংড়ে নিলে সেই গন্ধটাও দূর হয়ে যায়।

ট্যাংরা মাছ ডাঁটা চচ্চড়ি– উপকরণ-ট্যাংরা মাছ ৩০০ গ্রাম,ডাঁটা ১ কাপ,বেগুন ১ কাপ,গাজর আধা কাপ,আলু ১টি,পেঁয়াজবাটা ২ টেবিল চামচ,রসুনবাটা ১ চা-চামচ,জিরাবাটা ১ চা-চামচ,মরিচগুঁড়া ১ চা-চামচ,হলুদগুঁড়া ১ চা-চামচ,লবণ স্বাদমতো,কাঁচা মরিচ ৩-৪টি,টমেটোকুচি ১টি ও তেল প্রয়োজনমতো।

প্রণালি–ট্যাংরা মাছ লবণ ও হলুদ মেখে হালকা করে ভেজে তুলে রাখুন। কড়াইয়ে আরও কিছু তেল দিয়ে সব বাটা ও গুঁড়া মসলা দিয়ে ভুনে নিন।এবার আলু, গাজর, বেগুন ও ডাঁটা দিয়ে কষিয়ে পানি দিন। সবজি সেদ্ধ হয়ে এলে মাছ ও টমেটো দিন।কাঁচা মরিচ দিয়ে মাখা মাখা হলে ডাঁটা চচ্চড়ি নামিয়ে নিন।

পাটশাক চচ্চড়ি– উপকরণ-পাটশাক ২ আঁটি,নারকেলবাটা ১ টেবিল চামচ,পেঁয়াজকুচি ২ টেবিল চামচ,রসুনকুচি ১ চা-চামচ,কাঁচা মরিচ ফালি ২-৩টি,বোম্বাই মরিচকুচি সামান্য,হলুদগুঁড়া সামান্য,লবণ স্বাদমতো ও তেল প্রয়োজনমতো।

প্রণালি-পাটশাক ধুয়ে পানি ঝরিয়ে কুচি করে নিন। কড়াইয়ে তেল দিন।একে একে পেঁয়াজকুচি, নারকেলবাটা, রসুনকুচি, হলুদ, লবণ দিয়ে কষিয়ে নিন।কষানো হলে আধা কাপ পানি দিন। পাটশাক ও কাঁচা মরিচ দিয়ে নাড়ুন।সব মসলা মিশে শাক সেদ্ধ হয়ে এলে বোম্বাই মরিচ কুচি করে বা ফালি করে দিয়ে নামিয়ে গরম ভাতের সঙ্গে পরিবেশন করুন।

করলা চচ্চড়ি– উপকরণ: করলা মাঝারি ২টি,আলু ১টি,পেঁয়াজকুচি ২ টেবিল চামচ,রসুনবাটা ১ চা-চামচ,মরিচগুঁড়া আধা চা-চামচ,হলুদগুঁড়া সামান্য,ভাজা জিরার গুঁড়া আধা চা-চামচ,কাঁচা মরিচ ২-৩টি,লবণ স্বাদমতো,তেল প্রয়োজনমতো,পানি ১ কাপ ও চিংড়ি মাছ (ইচা) ৫-৬টা।

প্রণালি-কড়াইয়ে তেল দিয়ে তাতে পেঁয়াজকুচি, রসুনবাটা, হলুদ, মরিচ, লবণ, চিংড়ি মাছ ও সামান্য পানি দিয়ে মসলা কষাতে হবে।মসলা কষানো হলে তাতে করলা ও আলু দিন। কিছুক্ষণ কষা হলে ১ কাপ পানি দিন।করলা সেদ্ধ হয়ে মাখা মাখা হলে তাতে কাঁচা মরিচ ও ভাজা জিরার গুঁড়া দিয়ে নামিয়ে পরিবেশন করুন করলার চচ্চড়ি।

ডাল চচ্চড়ি– উপকরণ-মসুর ডাল ১ কাপ,পেঁয়াজকুচি ২ টেবিল চামচ,রসুনকুচি ১ চা-চামচ,আদাবাটা ১ চা-চামচ,জিরাবাটা ১ চা-চামচ,মরিচগুঁড়া আধা চা-চামচ,হলুদগুঁড়া আধা চা-চামচ,গরম মসলার গুঁড়া ১ চা-চামচ,লবণ স্বাদমতো,ধনেপাতা সামান্য,কাঁচা মরিচ ২-৩টি,তেল প্রয়োজনমতো,পানি ২ কাপ,টমেটোকুচি ১টি ওসরষের তেল ১ চা-চামচ।

প্রণালি-ডাল ধুয়ে পানি ঝরিয়ে নিতে হবে। কড়াইয়ে তেল দিয়ে তাতে পেঁয়াজ, রসুন, আদা, হলুদ, মরিচ, জিরা, লবণ ও সামান্য পানি দিয়ে কষিয়ে নিতে হবে।কষা হলে তাতে ডাল দিয়ে একটু ভুনা দিন। প্রয়োজনমতো পানি দিয়ে তাতে কাঁচা মরিচ, গরমমসলার গুঁড়া, টমেটোকুচি দিতে হবে।ডাল সেদ্ধ হয়ে ঘন হয়ে এলে ১ চা-চামচ সরষের তেল দিয়ে নামিয়ে নিন। সূত্র: প্রথম আলো