মজার রান্না ডেস্ক: নিত্যদিনের খাবারগুলোর মধ্যে ডাল অন্যতম। অনেকেই ডাল ছাড়া খাবার খেতেই পারেন না। সাধারণত মসুরির ডালটা বেশি রান্না করা হয়। অনেকে মুগ ডাল রান্না করে থাকেন মসুরি ডালের পরিবর্তে। অড়হর ডাল ঝামেলার কারণে অনেকেই রান্না করতে চান না। অথচ এই ডাল খেতে কিন্তু দারুণ। ভারতে গুজরাটে এই অড়হর ডাল দিয়ে একটি রান্না করা হয় “তোভার ডাল”। ভাত, রুটি সবকিছুর সাথে খেতে দারুন লাগে এই খাবারটি।

উপকরণ:

১/২ কাপ অড়হর ডাল,১/২ চা চামচ হলুদ গুঁড়ো,২ টি কাঁচা মরিচ,১/৪ চা চামচ আদা কুচি,১/৪ কাপ টমেটো কুচি,,১/৪ কাপ গুঁড়,লবণ স্বাদমত,১ টেবিল চামচ তেল,১ চা চামচ সরিষা,১/২ চা চামচ জিরা,২টি লবঙ্গ,১ টি ছোট দারুচিনি,৪-৫টি কারি পাতা,১/৪ চা চামচ হিং,১/২ চা চামচ মরিচ গুঁড়ো,২ চা চামচ লেবুর রস,২ টেবিল চামচ ধনেপাতা কুচি

প্রণালী:

১। অড়হরের ডাল ১.৫ কাপ পানি দিয়ে প্রেশার কুকারে দিয়ে দিন। ৩টি শিষ দেওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করুন। সিদ্ধ হয়ে এলে প্রেশার কুকারের ঢাকনা খুলে ফেলুন।২। রান্না করা ডালের সাথে ১ কাপ পানি দিয়ে ব্লেন্ডারে ব্লেন্ড করে নিন।৩। এবার একটি প্যানে ব্লেন্ড করা ডাল, হলুদ গুঁড়ো, কাঁচা মরিচ, আদা, টমেটো, গুঁড়, ১.৫ কাপ পানি এবং লবণ দিয়ে দিন। মাঝারি আঁচে ১০ মিনিট রান্না করুন।৪। ডাল মাঝে মাঝে নাড়ুন।৫। এখন আরেকটি প্যানে তেল গরম হয় এলে সরিষা, জিরা দিয়ে দিন। জিরা ফুটে আসলে এতে লবঙ্গ, দারুচিনি, কারি পাতা দিয়ে মাঝারি আঁচে কয়েক সেকেন্ড ভাঁজুন।

৬। এটি ফুটন্ত ডালে এটি দিয়ে দিন। এর সাথে হিং, মরিচ গুঁড়ো ভাল করে মিশিয়ে মাঝারি আঁচে ৪ থেকে ৫ মিনিট রান্না করুন।৭। সবশেষে লেবুর রস এবং ধনে পাতা কুচি দিয়ে ১-২ মিনিট নেড়ে নামিয়ে ফেলুন।৮। ভাত অথবা রুটির সাথে পরিবেশন করুন মজাদার তভার ডাল।