দোস্তি রুটি

উপকরণ: আটা ২ কাপ, পানি পরিমাণমতো, লবণ আধা চামচ, ঘি পরিমাণমতো এবং রুটি বানানোর জন্য আটা পরিমাণমতো।

প্রণালি: লবণ পানি মেশান ময়দার সঙ্গে। খামির বানাতে হবে। ১০ মিনিট ঢেকে রেখে দিন। এবার ভাগ করে নিতে হবে। এর থেকে দুই ভাগ রুটি বেলার মতো গোল করে হাত দিয়ে চেপে চেপে একটু বড় করে নিন। এখন এক ভাগের ওপর ঘিয়ের প্রলেপ দিতে হবে। ঘিয়ের ওপর আটা দিয়ে ঢেকে দিন। তারপর অন্য খামিরটি দিয়ে ঢেকে চেপে চেপে আটকিয়ে দিতে হবে। এখন সাধারণভাবে রুটি বেলতে হবে। এপিঠ কিছুক্ষণ বেলার পর অন্য পিঠ উল্টিয়ে বেলতে হবে।
এভাবে বেলতে বেলতে যখন ১২ থেকে ১৫ ইঞ্চি মাপের রুটি হবে, তখন বড় তাওয়া অথবা কড়াইয়ের উল্টো পিঠে সেঁকে নিতে হবে। গরম-গরম চার ভাঁজ করে জোরে রুটির পিঁড়ির ওপর বাড়ি দিন। এতে একটি রুটি ভাগ হয়ে একসঙ্গে দুটি দোস্তি রুটি হয়ে যাবে। হটপটে রেখে গরম-গরম যেকোনো কাবাব ও সালাদ ড্রেসিং দিয়ে পরিবেশন করুন।

বাটার বান

উপকরণ : ময়দা ২ কাপ, ইস্ট ১ টেবিল চামচ, গুঁড়া দুধ ৪ টেবিল চামচ, লবণ ১ চা-চামচ, ডিম ১টি, চিনি আধা কাপ, মাখন ২৫ গ্রাম এবং কিশমিশ, চেরি, মোরব্বা ও বাদাম প্রয়োজনমতো।

প্রণালি: আধা কাপ গরম দুধে ইস্ট, গুঁড়া দুধ, লবণ ও চিনি ১০ মিনিট ভিজিয়ে রাখুন। ফেঁপে উঠলে ময়দা ও প্রয়োজনমতো পানি দিয়ে খামির করতে হবে। যখন খামির হয়ে যাবে তখন মাখন দিয়ে আবার খামির ময়ান দিন। খামিরটা একটু নরম হবে। এবার ওই খামির ঢাকনা দিয়ে গরম জায়গায় এক ঘণ্টা রেখে দিতে হবে। যখন খামির ফুলে দ্বিগুণ হবে তখন কিশমিশ, চেরি, মোরব্বা ও বাদাম দিয়ে বিভিন্ন আকারে বান বানিয়ে এবং নানাভাবে সাজিয়ে পরিবেশন করতে পারেন।

ছিটা রুটি

উপকরণ: আতপ চালের গুঁড়া ২ কাপ, সাদা আটা আধা কাপ অথবা ডিম ১টি, লবণ ১ চা-চামচ, পানি ও তেল প্রয়োজনমতো।

প্রণালি: চালের গুঁড়ার সঙ্গে অন্য সব উপকরণ ও পানি দিয়ে পাতলা মিশ্রণ তৈরি করে নিতে হবে। ঢেকে রাখুন ৩০ মিনিট। এবার ননস্টিক ফ্রাইপ্যানে তেল ব্রাশ করে হাত ছিটা দিয়ে রুটি বানাতে হবে। পানির বোতলের ঢাকনায় চার-পাঁচটি ছোট ছিদ্র করে নিয়ে বোতলের মধ্যে মিশ্রণ ভরে ফ্রাইপ্যানে তেল ব্রাশ করে বোতল ঘুরিয়ে ঘুরিয়ে জালের মতো করেও ছিটা রুটি বানানো যায়। প্যানে মিশ্রণ দেওয়ার পর যখন রংটা পাল্টে যাবে, বুঝতে হবে ছিটা রুটি হয়ে গেছে। এবার চারপাশ অথবা লম্বা পাটির মতো ভাঁজ করে পরিবেশন করুন। সামান্য হলুদ ও মরিচের গুঁড়া মিশিয়েও আমরা ঝাল ছিটা রুটি বানাতে পারি।

ফুলকো লুচি

উপকরণ: ময়দা ২ কাপ, পানি পরিমাণমতো, লবণ পরিমাণমতো, সয়াবিন তেল সিকি কাপ ও তেল ভাজার জন্য পরিমাণমতো।

প্রণালি: ময়দা, লবণ, পানি দিয়ে শক্ত খামির বানাতে হবে। এবার একটু একটু করে তেল দিয়ে ওই খামির মাখাতে হবে। ঢেকে রেখে দিতে হবে এক ঘণ্টা। এরপর ছোট ছোট লেচি কেটে রুটি বানাতে হবে এবং ডুবো তেলে ভেজে (ডিপ ফ্রাই) পরিবেশন করুন।

তন্দুরি পরোটা

উপকরণ: ময়দা ৩ কাপ, ডালডা আধা কাপ, লবণ ১ চা-চামচ, কিশমিশ ও পনির প্রয়োজনমতো, চিনি সিকি কাপ, পানি পরিমাণমতো, তেল ২ টেবিল চামচ, চিজ আধা কাপ, ডিম ১টা এবং গুঁড়া দুধ আধা কাপ।

প্রণালি: ময়দা, লবণ, তেল, চিনি, দুধ দিয়ে খুব ভালো করে ময়ান করে নিতে হবে। এবার ডিম ও পানি দিয়ে মোটামুটি নরম খামির বানিয়ে নিন। এই খামির ৩০ মিনিট ঢেকে রাখতে হবে। ৩০ মিনিট পর ওই খামিরকে পাঁচটি ভাগে ভাগ করে একটি প্রশস্ত জায়গায় ফাঁকা ফাঁকা করে তেলে ডুবিয়ে ২ ঘণ্টা রেখে দিতে হবে।এবার একটি বড় পিঁড়িতে তেল মাখিয়ে নিন। তেলে ভেজানো একটি করে ডো নিয়ে হাত দিয়ে চেপে ও টেনে পাতলা করে বড় করতে হবে। ডালডা ভালোভাবে ময়ান করে অল্প তেলের সঙ্গে মিশিয়ে পাতলা রুটির ওপর প্রলেপ দিন। প্রলেপের ওপর চিজ ও কিশমিশ ছড়িয়ে দিতে হবে। রুটিটি চার ভাঁজ করে নিন।একই নিয়মে ওই ভাঁজের ওপর ডালডার হালকা প্রলেপ দিয়ে চার ভাঁজ করে গোল করে ১৫ মিনিট রেখে দিতে হবে। এরপর ওভেন ট্রেতে ঘি ব্রাশ করে চেপে চেপে পরোটার আকার করে ওভেন ১৮০ ডিগ্রিতে ২০ থেকে ২৫ মিনিট বেক করে নামিয়ে ওপরে ঘিয়ের ছিটা দিয়ে গরম-গরম পরিবেশন করুন।

সূত্র: প্রথম আলো