মজার রান্না ডেস্ক: ডেজার্ট হিসেবে পুডিং সকলেরই বেশ পছন্দের একটি খাবার। তবে শুধু ডেজার্ট হিসেবেই নয় পুডিং নাস্তা হিসেবেও খাওয়া যায়। সকালে বা বিকেলে ১ পিস পুডিং যেমন স্বাদের দিকে নজর রাখে তেমনই নজর রাখে স্বাস্থ্যের দিকেও। ওভেন না থাকলেও গ্যাসের চুলাতেই অনেক সহজে বানিয়ে নেয়া যায় পুডিং।

উপকরণঃ– পৌনে ১ লিটার দুধ– চিনি নিজের পছন্দমতো– ৪ টি ডিম– আধা টেবিল চামচ ঘি বা মাখন গলিয়ে নেয়া

পদ্ধতিঃ

ফুল ক্রিম দুধ নিয়ে প্যানে জ্বাল দিয়ে অর্ধেক পরিমাণে করে ফেলুন এবং নামিয়ে ঠাণ্ডা হতে দিন।একটি বাটিতে ডিম নিয়ে ভালো করে ফেটিয়ে এতে চিনি দিয়ে ফেটাতে থাকুন। খুব ভালো করে ফেটানো হয়ে গেলে এতে দিন ঘি বা মাখন। আরও খানিকক্ষণ ফেটিয়ে নিন।একটি পুডিং বাটি অথবা আপনি যেটাতে পুডিং বানাতে চান সেই বাটি নিয়ে কিছু চিনি তলায় ছড়িয়ে দিন।

প্রায় ১ চা চামচ পরিমান চিনি বাটিতে ছড়িয়ে কয়েক চামচ পানি দিয়ে চুলায় বসিয়ে দিন।চিনি গলে মিশে শিরা তৈরি হয়ে লাল হয়ে ক্যারামেলের মতো তৈরি হয়ে যাবে। বাটিতে ক্যারামেল বসে গেলে চুলা থেকে নামিয়ে ঠাণ্ডা করুন বাটিটি।এবার ডিম-চিনির মিশ্রনে ঠাণ্ডা হয়ে যাওয়া দুধ ঢেলে ভালো করে মিশিয়ে নিন। মনে রাখবেন যদি দুধ সামান্য গরম থাকে তবে ডিমকে জমাট করে ফেলবে।

তাই দুধ খুব ঠান্ডা করে নিয়েই মেশাতে হবে। এরপর ঠাণ্ডা হয়ে যাওয়া পুডিং বাটিতে পুরো মিশ্রণটি ঢেলে দিন।একটি বড় সসপ্যান ধরণের পাত্র চুলায়। এর ঠিক মাঝে একটি পাতিল রাখার স্ট্যান্ড বসিয়ে দিন। এতে দিন ১/৪ অংশ পানি। পুডিংয়ের বাটিটি স্ট্যান্ডের উপর বসিয়ে ঢেকে দিন।সসপ্যান ধরণের পাত্রটিও ভালো করে ঢেকে উপরে ভারী কিছু দিয়ে চাপা দিন।

এখন আগুন জ্বালিয়ে পানি জ্বাল করতে থাকুন।২০-২৫ মিনিটের মধ্যেই পুডিং হয়ে যাবে, তাই সতর্ক থাকুন। চুলা থেকে নামানোর আগে একটি কাঠি দিয়ে পুডিং ঠিকমতো হয়েছে কিনা পরীক্ষা করে নিন।এরপর পুডিংএর বাটি একটু ঠাণ্ডা হলে একটি ছড়ানো প্লেটে উল্টো করে দিন। এতে পুডিংয়ের ক্যারামেল অংশটি উপরে আসবে। ব্যস, এবার মজা নিন সুস্বাদু পুডিংয়ের।

* চাইলে ছোটো ছোটো বাটিতে অল্প করে মিশ্রন ঢেলে তৈরি করে নিতে পারেন মিনি পুডিং।