ঘরেই তৈরি করুণ রেস্টুরেন্টের মত ৮ পদের মজাদার পাস্তা - Mojar Ranna ঘরেই তৈরি করুণ রেস্টুরেন্টের মত ৮ পদের মজাদার পাস্তা - Mojar Ranna

ঘরেই তৈরি করুণ রেস্টুরেন্টের মত ৮ পদের মজাদার পাস্তা

;
  • প্রকাশিত: ৭ মার্চ ২০২০, ১২:৪১ পূর্বাহ্ণ | আপডেট: ২ বছর আগে

১। পাস্তা ইন হোয়াইট সস–

উপকরণঃ* পাস্তা ২৫০ গ্রাম,* কচি বাঁধাকপি স্লাইস- ১/২ কাপ,* বেবি কর্ণ- ১/২ কাপ,* মটর্শুঁটি- ১/২ কাপ,* মুরগীর হাড়ছাড়া মাংস অথবা টুনা মাছ ৫০ গ্রাম,* তরল দুধ ১ কাপ,* ময়দা ২ টেবিল চামচ,* সাদা গোলমরিচ গুঁড়ো,* কাল গোলমরিচ গুঁড়ো,* স্বাদ লবণ,* মিহি রসুন কুচি ১/২ চা চামচ,* মাখন ও অলিভ ওয়েল পরিমানমত ।

হোয়াইট সস তৈরি করতেঃ– একটি পাত্রে মাখন গরম করুন এবং রসুন কুচি দিন। এবার চামচ দিয়ে উপরে ময়দা ছিটিয়ে দিন। হাল্কা বাদামী হলে দুধ এবং অল্প পানি দিয়ে নাড়তে থাকুন। ঘন হয়ে সসের মত হলে চুলার জ্বাল নিভিয়ে দিন এবং সাদা গোলমরিচ গুঁড়া ছিটিয়ে দিন।প্রণালীঃ– একটি পাত্রে পানি, লবণ আর অলিভ অয়েল দিয়ে পাস্তা বয়েল করুন, হয়ে গেলে ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে একপাশে রাখুন। এবার ফ্রাইপ্যানে আরেকটু তেল, লবণ দিয়ে মুরগীর টুকরোগুলো ভেজে নিন, তারপর একে একে সবজিগুলো দিন, স্বাদলবণ যোগ করুন। এরপর তাতে পাস্তা ঢেলে দিন ও কিছুক্ষণ নাড়াচাড়া করুন। ক্যানড টুনা ফিশ দিতে চাইলে এখন দিয়ে দিন। এবার চুলা থেকে নামিয়ে হোয়াইট সস আর কালো গোলমরিচ গুঁড়ো মিশিয়ে সুন্দর করে পরিবেশন

২। চিকেন পাস্তা–

উপকরনঃ* পাস্তা ৫০০ গ্রাম,* চিকেন ছোট টুকরা ২ কাপ,* অলিভ অয়েল ২ টেবিল চামচ,* পেয়াজ ১ টি (মিহি কুচি),* রসুন কোয়া কুচি ৬ টি,* পার্সলে গুড়া ১ চা চামচ,* টমেটো কুচি ৫০০ গ্রাম,* লবন পরিমান মত,* গোলমরিচ পরিমাণ মত ।

প্রণালীঃ– ফ্রাইপ্যানে অলিভ অয়েল দিয়ে এতে রসুন কুচি হালকা বাদামী করে ভেজে আলাদা করে তুলে রাখুন। ওই তেলেই পেঁয়াজ ভেজে তারপর টমেটো দিয়ে ১০ মিনিট রান্না করুন। টমেটো গলে গেলে লবন, গোলমরিচের গুড়া আর পার্সলে গুড়া দিয়ে আরো কয়েক মিনিট রান্না করুন। হয়ে গেল টমেটো সস। আলাদা প্যানে অল্প তেলে অল্প লবন আর গোল মরিচ গুড়া দিয়ে চিকেন টুকরোগুলো ভেজে নিন । পাস্তা সেদ্ধ করে নিন, তারপর ঠান্ডা পানিতে ধুয়ে হাফ চা চামচ অলিভ অয়েল দিয়ে ভালো করে পাস্তা গুলো মাখুন। এতে পাস্তা আঠার মত লেগে থাকবে না। টমেটো সসের মধ্যে পাস্তা আর চিকেন দিয়ে ২ মিনিট বেশি আঁচে ভাজুন। উপরে চীজ ছড়িয়ে গরম গরম পরিবেশন করুন মজাদার চিকেন পাস্তা।

৩। ম্যাকারনি পাস্তা–

উপকরণঃ* ২ কাপ ম্যাকারনি, সেদ্ধ করা,* ২ টেবিল চামচ মাখন,* ১ টেবিল চামচ ময়দা,* দেড় কাপ দুধ,* লবণ স্বাদমতো,* ২/৩ টেবিল চামচ পনির,* গোলমরিচের গুঁড়ো স্বাদমত,* সিকি কাপ ক্যাপসিকাম কুচি,* ওপরে দেবার জন্য পারমেজান চিজ,* ওপরে দেবার জন্য ধনেপাতা ।

প্রণালীঃ– ওভেন প্রিহিট হতে দিন ১৮০ ডিগ্রিতে। হোয়াইট সস তৈরির জন্য একটি নন-স্টিক প্যানে মাখন গরম করে নিন। এতে ময়দা দিয়ে ৩০ সেকেন্ড সাঁতলে নিন। এরপর দুধ দিয়ে দিন। মিশিয়ে রান্না করুন যতক্ষণ না ঘন হয়ে আসে। ক্রমাগত নাড়ুন। লবণ এবং পনির দিন। পনির গলে না যাওয়া পর্যন্ত নাড়ুন। এতে গোলমরিচ গুঁড়ো, ক্যাপসিকাম এবং সেদ্ধ ম্যাকারনি দিন। ভালো করে মেশান। চুলা বন্ধ করে দিন। আলাদা আলাদা বাটিতে নামিয়ে নিন পাস্তা। ওপরে অল্প করে পারমেজান চিজের গুঁড়ো দিন। এরপর প্রিহিট করা ওভেনে ৫-১০ মিনিট বেক করুন যাতে ওপরের চিজ সোনালি হয়ে আসে। এরপর ওপরে ধনেপাতা দিয়ে সাজিয়ে পরিবেশন করুন ম্যাকারনি পাস্তা।

৪। ইতালিয়ান পাস্তা–

উপকরনঃমোটামুটি মাঝারি এক বাটি হোয়াইট সসের জন্যঃ* বাটার ৫ টেবিল চামচ,* ময়দা ১/২ কাপ,* দুধ দুই কাপ,* জয়ফল গুড়া ১/৪ চা চামচ (বেশী হলে তিতে ভাব এসে যাবে),* গোল মরিচের গুড়া ১/২ চা চামচ,* টেষ্টিং সল্ট ১/২ চা চামচ বা কম,* চিনি ২ চা চামচ,* লবন ১ চা চামচ (বা লাগলে পরে দেয়া যেতে পারে) ।

প্রণালীঃ– প্রথমে এক চিমটি লবন যোগে পাস্তা গুলো গরম পানিতে সিদ্ধ করে নিন। সিদ্ধ খুব বেশি নয়, বেশী করলে পাস্তা গুলো গলাগলা হয়ে যাবে। নরম হবে কিন্তু আকার ঠিক থাকবে। এবার চালুনিতে ঢেলে ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে সামান্য তেল দিয়ে মেখে নিতে হবে।ঝর ঝরে পাস্তা রান্নার জন্য তেরী হয়ে গেল, এবার রেখে দিন। এবার কয়েক চামচ তেল গরম করে আদা কুঁচি ভেঁজে নিন। হলদে ভাব নিয়ে আসুন। এবার চিকেন দিয়ে দিন, দুই চিমটি গোল মরিচ দিন। দুই চা চামচ ওয়েষ্টার সস দিন। এবার হাফ কাপ দুধ দিন। কাঁচা মরিচ কুঁচি দিন মাধ্যম আঁচে নাড়িয়ে রান্না করুন। ব্যস চিকেন রেডি হয়ে গেল এবং তুলে রাখুন। এবার কড়াই গরম হলে তাতে মাখন দিন। মাখন গলে গেলে লবন ও ময়দা দিন। ভাল করে নাড়িয়ে দিন, নাড়ানো থামাবেন না। আগুন কম থাকবে। এবার দুধ দিন। নাড়ান। গোল মরিচের গুড়া এবং জয়ফলের গুড়া দিন। এবার চিনি দিন। আগুন মাঝারি বা কমে থাকবে। ঘন হলে নামিয়ে ফেলুন। ব্যস হয়ে গেল, হোয়াইট সস।মুল রান্নাঃ– হোয়াইট সসে প্রথমে প্রিপারেশন করা পাস্তা দিন। ভাল করে নাড়িয়ে মিশিয়ে নিন। এবার প্রিপারেশন করা চিকেন দিয়ে দিন এবং ভাল করে মিশিয়ে নিন। ধনিয়াপাতার কুঁচি দিন। ভাল করে মিশিয়ে নিন এবং লবনের স্বাদ দেখুন। যদি মনে হয় লবন লাগবে তবে দিয়ে আবার নাড়িয়ে নিন। এবার নামিয়ে ফেলুন। ব্যাস হয়ে গেলো ইতালিয়ান পাস্তা । আশা করি রেসিপিটি আপানাদের ভালোলাগবে। কাল ছুটির দিনে পাস্তা তৈরির রেসিপিটি একবার চেষ্টা করে দেখতে পারেন।

৫। চিজ পাস্তা–

উপকরণঃ* পাস্তা ৫০০ গ্রাম,* মুরগি বা গরুর মাংস ৫০০ গ্রাম,* সয়া সস ১ টেবিল চামচ,* আদাবাটা ১ চা চামচ,* রসুনকুচি ২ চেবিল চামচ,* টমেটো পিউরি আধা কাপ বা টমেটো ২টি (কাটা),* টমেটো সস ২ টেবিল চামচ,* পাপরিকা পাউডার বা মরিচগুঁড়া ১ টেবিল-চামচ,* ক্রিম ৪ টেবিল চামচ (ইচ্ছা),* ওরিগানো ১ চা চামচ,* বেসিল ১ চা চামচ,* গোলমরিচের গুঁড়া ১ টেবিল চামচ,* কাঁচামরিচ ৪-৫টি,* মোৎজেরেলা চিজ আধা কাপ,* পেঁয়াজপাতা পরিমাণ মতো ।

পদ্ধতিঃপ্রয়োজন মতো পানি গরম করে লবণ দিয়ে পাস্তা সিদ্ধ করে পানি ঝড়িয়ে নিন৷ কড়াইতে তেল গরম করে ছোট টুকরা করা মাংস, আদাবাটা, রসুনকুচি, সয়া সস ও পাপরিকা পাউডার দিয়ে ভাজুন। তারপর টমেটো পিউরি এবং টমেটো সস, ক্রিম, কাচাঁমরিচসহ চার থেকে পাঁচ মিনিট রান্নার পর সিদ্ধ করা পাস্তা দিয়ে দিন। সঙ্গে কিছু চিজ, ওরিগানো এবং বেসিল ছিটিয়ে দিয়ে মিশিয়ে নিন। নামানোর আগে আগে উপরে বাকি চিজ, ওরিগানো, বেসিল এবং পেঁয়াজপাতা ছিটিয়ে দুই মিনিট ঢেকে রাখুন। তাহলে পাস্তার উপরে দেওয়া চিজগুলো গলে যাবে৷ নামিয়ে গরম গরম পরিবেশন করুন।

৬। স্পাইসি চিজ পাস্তা–

উপকরণঃ* পাস্তা ২ কাপ,* মরিচগুঁড়া আধা চা চামচ,* গোলমরিচের গুঁড়া আধা চা চামচ,* টমেটো সস আধা কাপ,* চিজ কুচি এককাপের চারভাগের একভাগ,* তেল ৩ টেবিল চামচ,* লবণ পরিমাণমতো ।

পদ্ধতিঃ– পাস্তা সিদ্ধ করে চালনিতে ঢেলে পানি ঝড়িয়ে নিন। প্যানে তেল গরম করুন। সিদ্ধ পাস্তা দিয়ে এক মিনিট নেড়ে মরিচগুঁড়া, গোলমরিচের গুঁড়া আর লবণ দিয়ে আরও এক মিনিট নাড়ুন। তারপর টমেটো সস আর চিজ দিয়ে এক মিনিট নেড়ে নামিয়ে নিন। শসাকুচি, লটুসপাতা দিয়ে পরিবেশন করুন। চিজ না থাকলে একই পদ্ধতিতে রান্না করে মেয়নেইজ দিয়ে পরিবেশন করুন।

৭। এগ পাস্তা–

উপকরণঃ* পাস্তা ২০০ গ্রাম/প্রয়োজন মতো,* টোমেটো কুচি ২টি,* পেঁয়াজকুচি বড় ১টি,* কাঁচামরিচ ৩,৪টি (ফালি করে কাটা),* লবণ স্বাদ মতো,* ডিম ২,৩টি (ফেটানো),* গোলমরিচ গুঁড়া সামান্য,* টমেটো সস ২ টেবিল চামচ,* গাজরকুচি ২,৩ টেবিল চামচ,* ক্যাপ্সিকাম কুচি ১টি,* সয়া সস ১ টেবিল চামচ ।

পদ্ধতিঃ– প্রথমে একটি পাত্রে পানি নিয়ে, গরম করতে দিন। তাতে এক চা-চামচ তেল ও আধা চা-চামচের মতো লবণ দিন। পানি ফুটে গেলে পাস্তা দিন। পাস্তা নরম না হওয়া পর্যন্ত সিদ্ধ করুন। তারপর পানি ছেঁকে ফেলে দিন। একটু পানি দিয়ে ধুয়ে নিন সিদ্ধ পাস্তাগুলো। এবার প্যানে তিন থেকে চার টেবিল-চামচ তেল গরম করে পেঁয়াজকুচি দিয়ে ভাজুন। গাজরকুচি দিন এবং দুই সেকেন্ড ভেজে ক্যাপ্সিকাম, ফালি করা কাঁচামরিচ ও টমেটো কুচি দিয়ে ভাজতে থাকুন। সয়াসস ও গোলমরিচ-গুঁড়া দিয়ে নেড়ে মেশান। তারপর এরমধ্যে লবণ ও টমেটো সস দিয়ে নেড়ে ফেটানো ডিম দিয়ে কয়েক সেকেন্ড পর নাড়ুন। ডিম ভাজা ভাজা হলে পাস্তা দিয়ে দিন। ভালো করে নেড়ে সব মিশিয়ে ঢেকে মাঝারি আঁচে ১০ মিনিট রাখুন। নামানোর আগে আবার নেড়ে নামিয়ে নিন। সসের সঙ্গে পরিবেশন করুন মজাদার এগ পাস্তা।

৮। সবজি পাস্তা–

উপকরণঃ* ফুলকপি ১ কাপ,* গাজর ১ কাপ,* বরবটি দেড় কাপ,* টমেটো আধা কেজি,* ক্যাপসিকাম ১টি,* কাঁচামরিচ ৪-৫টি,* ধনিয়াপাতার কুচি ২ কাপ,* শুকনামরিচ ২-৩টি,* পাস্তা ২৫০ গ্রাম,* অলিভ অয়েল,* গোলমরিচ ২ চা-চামচ,* পেঁয়াজ আধা কাপ,* কর্ন ফ্লাওয়ার ২ টেবিল-চামচ,* লবণ স্বাদমতো ।

পদ্ধতিঃ– আগে পাস্তার জন্য সবজি তৈরি করতে হবে। একটি ননস্টিক হাঁড়িতে ২ টেবিল-চামচ তেল নিন। তেল গরম হয়ে আসলে পেঁয়াজের সঙ্গে সবজিগুলো দিয়ে একটু নেড়ে লবণ দিয়ে ঢেকে দিন। বারবার ঢাকনা খুলে দেখুন সিদ্ধ হয়েছে কি না। একটু বেশি জ্বালে দিবেন আর কাঠের চামচ দিয়ে নাড়বেন। সবুজ থাকা অবস্থায়তেই সবজি নামিয়ে ফেলুন। একটা আলাদা পাত্রে রেখে দিন। এবার পাস্তা সিদ্ধ করুন। এই সময় একটু অলিভ অয়েল দেবেন। এতে পানি ঝরানোর জন্য ঝুড়িতে রাখলে একটার সঙ্গে আর একটা পাস্তা লেগে থাকবেন না। ঝরঝরা থাকবে। ১০ থেকে ১২ মিনিট পর, সিদ্ধ হয়ে এলে পানি ঝরিয়ে একটা পাত্রে ছড়িয়ে রাখুন। এবার টমেটোগুলো চারভাগ করে কাটুন। ননস্টিকের হাঁড়িতে ২ টেবিল-চামচ তেল নিয়ে তাতে টমেটোগুলো ছেড়ে দিন। চামচ দিয়ে নেড়ে রস বের করে টমেটোগুলো পেস্ট করে ফেলবেন। এখন গোলমরিচ আর লবণ স্বাদমতো দিয়ে, এতে সবজিগুলো ঢালুন। নাড়াচাড়া দিয়ে ঢেকে রাখুন ৫ মিনিট। এখন কর্ন ফ্লাওয়ার ঠান্ডা পানিতে গুলিয়ে এতে দিয়ে আরও ৫ মিনিট রেখে নামিয়ে ফেলুন। একটি কড়াইয়ে ১ টেবিল চামচ অলিভ অয়েল দিয়ে একটু গরম করুন। তাতে শুকনামরিচগুলো দিন। ভাজাভাজা হয়ে গেলে পাস্তা ঢেলে সঙ্গে কুঁচি করা ধনিয়াপাতা দিয়ে হালকা নাড়াচাড়া দিয়ে নামিয়ে ফেলুন। পাস্তা আর সবজি একসঙ্গে পরিবেশন করুন।

শেয়ার করুন

এই সম্পর্কিত আরও খবর...

পোর্টাল বাস্তবায়নে : আয়ান আইটি