সকালের নাস্তায় শুধু মুগডালের খিচুরিই নয় রান্না করতে পারেন মুগডালের বিরিয়ানিও - Mojar Ranna সকালের নাস্তায় শুধু মুগডালের খিচুরিই নয় রান্না করতে পারেন মুগডালের বিরিয়ানিও - Mojar Ranna

সকালের নাস্তায় শুধু মুগডালের খিচুরিই নয় রান্না করতে পারেন মুগডালের বিরিয়ানিও

;
  • প্রকাশিত: ২৫ নভেম্বর ২০১৮, ১০:২৪ অপরাহ্ণ | আপডেট: ৪ বছর আগে

উপকরণ :

গরুর মাংস দুই কেজি,

পোলাওর চাল এক কেজি,

মুগডাল আধা কেজি,

ঘি এক কাপ,

পেঁয়াজ বাটা দুই টেবিল-চামচ,

আদা বাটা দুই টেবিল-চামচ,

রসুন বাটা এক টেবিল-চামচ,

পেঁয়াজ কুচি এক কাপ,

দারুচিনি সাত-আট টুকরা,

এলাচ ছয়-সাতটি,

গরম মসলার গুঁড়া আধা চা-চামচ,

কাঁচা মরিচ ৮-১০টি,

লবণ স্বাদমতো,

চিনি আধা টেবিল-চামচ,

তেজপাতা চার-পাঁচটি ও

টকদই পৌনে এক কাপ।

প্রণালি :

মাংস টুকরা করে ধুয়ে পানি ঝরিয়ে তাতে টকদই মাখিয়ে ২৫-৩০ মিনিট রাখতে হবে। তেল গরম করে কিছু দারুচিনি ও এলাচের ফোড়ন দিয়ে তাতে আধা কাপ পেঁয়াজ কুচি ভাজতে হবে।

পেঁয়াজ বাদামি রং হলে পেঁয়াজ বাটা ও অর্ধেকটা আদা ও রসুন বাটা দিয়ে মাংস কষাতে হবে। পরিমাণমতো পানি দিয়ে মাংস সিদ্ধ করতে হবে।

ঝোল শুকিয়ে এলে গরম মসলার গুঁড়া দিয়ে চুলা থেকে নামাতে হবে। মুগডাল ভেজে, ধুয়ে, গরম পানি দিয়ে এমনভাবে সিদ্ধ করতে হবে, যাতে ডাল গলে না যায়।

চাল ধুয়ে পানি ঝরাতে হবে। ঘি গরম করে বাকি পেঁয়াজ কুচি বাদামি রং করে ভেজে তাতে অবশিষ্ট বাটা মসলা ও গরম মসলা দিয়ে কষিয়ে চাল ভাজতে হবে।

চাল ভাজা হলে গরম পানি দিতে হবে। ফুটে উঠলে লবণ ও ডাল দিতে হবে। পানি কমে এলে চিনি দিতে হবে।

পোলাওর পানি শুকিয়ে গেলে হাঁড়ি থেকে কিছুটা পোলাও উঠিয়ে কিছু মাংস ও কাঁচা মরিচ দিয়ে আবার পোলাও দিয়ে ওপরে মাংস ও কাঁচা মরিচ ছিটিয়ে এভাবে তিন স্তরে সাজিয়ে দমে দিতে হবে।

মুগডালের বিরিয়ানি কাবাব ও সালাদের সঙ্গে পরিবেশন করা যায়।

শেয়ার করুন

এই সম্পর্কিত আরও খবর...

পোর্টাল বাস্তবায়নে : আয়ান আইটি